বাচ্চাকে মৃত্যুর মুখ থেকে বাঁচালো বাস্তবের ‘স্পাইডারম্যান’! দেখুন ভিডিও

0
1125

আপনারা টিভি বা সিনেমার পর্দায় এই ধরণের অনেক কাহীনিই দেখে থাকবেন যেখানে সুপারহিরো নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সকলকে বিপদ থেকে রক্ষা করে। কিন্তু আজ আমরা আপনাদের বাস্তব জীবনের স্পাইডারম্যানের কথা বলবো, যে তার জীবনের ঝুঁকি নিয়ে একটি বহুতল আবাসনের উপরে উঠে যায় এবং একটি বাচ্চার প্রাণ বাঁচায়। আসুন দেখে নেওয়া যাক ঘটনাটি কি ঘটেছিল।

এই কদিনে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ভীষণ ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে এক শিশু বহুতল আবাসনের ব্যালকনি থেকে ঝুলছে এবং সেই দেখে এক যুবক অত্যন্ত উদ্যম ও সাহসিকতার সাথে সেই বিল্ডিংয়ের উপরে উঠা শুরু করে। একের পর এক ধাপ পেরিয়ে সে শেষ অবধি বাচ্চাটির কাছে পৌঁছে যায় এবং তাকে বাঁচিয়ে নেয়।

 

ভিডিওতে এটিও দেখা যায় যে বাচ্চাটির পাশেই আরেকটি লোক দাঁড়িয়ে রয়েছে, কিন্তু ওখানে থাকা প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান অনুযায়ী সেই লোকটি আসার আগেই নিচে থাকা যুবকটি বিল্ডিংয়ে চড়তে শুরু করে দেয়। আর যে লোকটি বাচ্চাটির কাছেই ছিল সে বাচ্চাটিকে ঠিকঠাকভাবে ধরতে পারছিল না, কারণ বিল্ডিংয়ের ব্যালকনির গায়ে রেলিং লাগানো ছিল। এমত অবস্থায় এই সুপারহিরো যদি বাচ্চাটির কাছে পৌঁছে না যেত, তাহলে ঘোরতর বিপদের সম্ভাবনা ছিল।

সূত্র অনুযায়ী এই ভিডিওটি প্যারিসের 18th Arrondissemen এর। ভিডিওতে স্পাইডারম্যানের মতো বিল্ডিংয়ে চড়া যুবকের বয়স ২২ বছর, যার নাম Mamoudou Gassama. যুবকটি সংবাদমাধ্যমকে জানান, সে ওই রাস্তা দিয়েই যাচ্ছিল, তখন দেখে একটি বিল্ডিংয়ের নিচে ভিড় জমে রয়েছে। এরপর যখনই বাচ্চাটি তার নজরে আসে সে বিল্ডিংয়ে চড়তে শুরু করে দেয় তাকে বাঁচাতে। যখন তাকে জিগেস করা হয় কেন সে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এই কাজ করল, তখন সে জানায়, “ও একটা বাচ্চা, এই অবস্থায় কিভাবে ও কে ছেড়ে দেবো, ভগবানের দয়ায় ও আজ বেঁচে গেছে।”

সুত্র অনুযায়ী চার বছরের বাচ্চাটি ব্যালকনিতে এসে ওইভাবে পড়ে যায় যখন তার বাবা তাকে একা ছেড়ে কেনাকাটা করতে গিয়েছিল। বাচ্চাটি ব্যালকনিতে একাই খেলছিল, তারপর হঠাৎই পা পিছলে পড়ে যায়, তবে ভাগ্য ভালো যে ব্যালকনিতে গ্রিল লাগানো ছিল, বাচ্চাটি তাতেই আটকে ঝুলতে থাকে।

এই পুরো ঘটনার মধ্যে শিশুকে বাঁচানোর জন্য Mamoudou Gassama-র সামান্য কিছু চোট লাগে, যদিও শিশুটির একটি নখ ভেঙে গেছে। যখন এই বাহাদুর যুবকের ভিডিও ভারতে ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে গেছে, তখন সেখানকার রাষ্ট্রপতি Emmanuel Macron, Mamoudou Gassama কে ব্যক্তিগতভাবে ডেকে সম্মানিত করেন। এখানের স্থানীয় মিডিয়া তাকে স্পাইডারম্যান নামে ডাকছে।

এইভাবে লোকজন যদি একে অপরের সাহায্যার্থে নিঃস্বার্থভাবে এগিয়ে আসে তবে নিঃসন্দেহে এই পৃথিবীর চিত্রটাই পালটে যাবে। এখন আপনারা নিজের চোখেই দেখুন সেই বাহাদুর যুবকের ভিডিওটি। নিবন্ধটি ভালো লাগলে ফেসবুকে শেয়ার করুন।

নিচের ভিডিওতে দেখুন যুবকটি কিভাবে শিশুটিকে উদ্ধার করে –