লকডাউনের মেয়াদ বাড়াবে, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল WHO-এর বার্তা ভুয়ো

0
373

করোনা রুখতে দেশজুড়ে চলছে ২১ দিনের লকডাউন। এই লকডাউনের সময়ই চিন্তিত দেশবাসী। আদৌ করোনা ভাইরাস দেশ ছেড়ে যাবে কিনা, সেই সঙ্গে লকডাউনের সময়কাল বাড়তে পারে বলেও আশঙ্কা করেছিল অনেকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করোনাভাইরাসের জেরে জারি হওয়া লক ডাউনের সবিস্তার শেডিউল। সেখানে ২২শে মার্চ জনতা কার্ফু থেকে কীভাবে ধাপে ধাপে  লক ডাউন জারি থাকবে দীর্ঘদিন পর্যন্ত তার বিস্তারিত বিবরণ রয়েছে।

সেই নির্দেশিকার উপরে রয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা ‘হু’-এর নাম ও  লোগো। আর তা নিয়ে রীতিমতো উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন দেশবাসী। সেই নির্দেশিকা যে ভুয়ো, তা সাফ জানিয়ে দিল কেন্দ্রীয় সরকার। লকডাউন নিয়ে অনেক ভুয়ো খবর ছড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে। এই রকমই একটি ভুয়ো খবর ছড়িয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (WHO) নামে।

সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে লকডাউনের সময়কাল নিয়ে WHO-এর বার্তা ভুয়ো বলে জানিয়েছে PIB Fact Check। এদিন এক ট্যুইটে তারা জানিয়েছে যে WHO-এর বলে দাবি করা এই লকডাউনের সময়কাল নিয়ে বার্তাটি ভুয়ো। এই ভুয়ো বার্তায় দাবি করা হয়েছিল ১৫ এপ্রিল থেকে ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন তুলে দেওয়া হবে। তারপর ২০ এপ্রিল থেকে ২৮ দিন লকডাউন থাকবে দেশজুড়ে। তারপর আবার ৫ দিনের জন্য দেশবাসীকে লকডাউন মুক্ত করে মে মাসের অর্ধেক পর্যন্ত লকডাউন থাকবে। যদিও এর আগে WHO-এর দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ট্যুইটারে পোস্ট করে বলা হয়েছিল যে, লকডাউন নিয়ে এই তথ্য ভুয়ো।

সূত্র

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ সচিব রাজীব গৌবা। তিনি বলেন, “এ জাতীয় প্রতিবেদন দেখে আমি খুবই অবাক হয়েছি। লকডাউন বাড়ানোর কোনও পরিকল্পনা নেই।” এই লকডাউনের সময় বন্ধ ছিল কম-বেশি প্রায় সব দোকান-পাটই। এবার এই লকডাউন শেষে কিভাবে এগিয়ে চলবে গোটা দেশ তারই পরিকল্পনা চলছে। এই পরিকল্পনা নিয়ে চিন্তিত দেশের সরকার।

সূত্র –