নৃ’শংসতার চরম নিদর্শন! মহিলা ক্রেতাকে খু’ন করে শ’বের সাথেই স’ঙ্গম মুম্বাইয়ের দোকানির

0
356
প্রতীকী ছবি

কা’মের তাড়নায় কতটা নৃ’শংস হতে পারে মানুষ, তার প্রমাণ বারবার প্রকাশ্যে এসেছে। এবার সেই সাক্ষী বহন করল মুম্বইও। মহিলা ক্রেতাকে খু’ন করে শ’বের সঙ্গেই স’ঙ্গম করল মুম্বইয়ের এক দোকানি। ঘটনাটি ঘটেছে মুম্বইয়ের নালাসোপাড়ায়। ওই ব্যক্তির একটি খেলনার দোকান রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। গত ২৬ জুন ভ’য়ংকর এই ঘটনাটি ঘটেছে দেশের বাণিজ্যিক রাজধানীতে।

প্রত্তীকী ছবি

জানা গিয়েছে, গত ২৬ জুন ৩২ বছর বয়সী ওই মহিলা মুদিখানার জিনিসপত্র কিনতে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন। তখনই তিনি ছেলের জন্য খেলনা কিনতে ওই ব্যক্তির দোকানে যান। এরপর থেকেই ভদ্রমহিলা নিখোঁজ ছিলেন। মহিলার স্বামী তুলিং পুলিশ স্টেশনে একটি মিসিং ডাইরি করেন।

প্রতীকী ছবি

ঘটনার দুদিন পর ২৮ জুন মুম্বইয়ের চন্দন চকের কাছে একটি পিক ভ্যানের মধ্যে থেকে মহিলার দে’হ উদ্ধার হয়। এরপর ময়’নাতদ’ন্তের রিপোর্টেই ধরা পড়ে সেই ভয়ং’কর ঘটনা। মহিলাকে হ’ত্যার ও পরে ধ’র্ষণের প্রমাণ পাওয়া যায়। অ’টোপসি রিপোর্ট হাতে নিয়ে এরপর ত’দন্ত শুরু করে পালঘর ক্রা’ইম ব্রাঞ্চ।

প্রতীকী ছবি

গোটা এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হয়। ত’দন্তে নেমে মহিলার দে’হ উ’দ্ধার হওয়া পিক আপ ভ্যানের মালিককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তিনি ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেন। তাঁর দাবি ছিল, বেশ কয়েকদিন ধরেই তিনি চন্দন চকে গাড়িটি পার্ক করে রেখেছিলেন।

TOI

এরপরই পুলিশের কাছে খবর আসে, ২৬ জুন এক দোকানির সঙ্গে খেলনার দরদাম নিয়ে ওই মহিলার ঝগড়া বেধেছিল। সেই সময়ই দোকানি ওই মহিলাকে চুলের মুঠি ধরে দোকানের পিছনের একটি ঘরে নিয়ে যান। রীতিমতো মা’রধর করে ধ’র্ষণ করা হয় তাঁকে। এরপর খুন করেও মহিলার সঙ্গে স’ঙ্গম করেন ওই দোকানি। গোটা রাত মৃ’তদেহের সঙ্গেই ছিলেন অভি’যুক্ত। মহিলার দে’হ একটি কালো ত্রিপলে মুড়ে রেখে আসেন ওই পিক আপ ভ্যানে। দোকানিকে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ।

সংগৃহীত – এইসময়