এই সিনেমার ঘোষণা ‘প্রযোজক’ দেব’কে অনেকটা উচ্চতায় নিয়ে গেল!

0
644

‘পদ্মশ্রী সুবাসিনী মিস্ত্রী’র নাম শুনেছেন নিশ্চয়? গত জানুয়ারী মাসে ভারত সরকার কতৃক প্রকাশিত ‘পদ্মশ্রী’প্রাপকদের তালিকায় তাঁর নাম অন্যতম। ২৩ বছর বয়সে তিনি স্বামী’কে হারান। তখন হাতের পাঁচ আঙুল বলতে চার ছেলে মেয়ে। চিকিৎসার অভাবে স্বামীকে হারাতে হয়। তাই প্রতিজ্ঞা করেন একটি হাসপাতাল বানাবেন, যাতে কোনোদিন কাউকে চিকিৎসার অভাবে এরকম স্বজন ছাড়া হতে না হয়। এরপর একবছরের ছোট্ট কন্যাকে কোলে করেই শুরু করেন আনাজ বিক্রির কাজ। মাঝে মধ্যে কাজ করতেন অন্যের বাড়িতেও। এইভাবেই তিনি তিলে তিলে বানিয়ে ফেলেন একটি হসপিটাল। যার বর্তমান নাম ‘হিউম্যানিটি হসপিটাল’। হসপিটাল বাদেও বড়ো ছেলেকে চিকিৎসক বানিয়েছেন তিনি। তাঁর কাঁধেই এখন হসপিটালের সমস্ত দায়িত্ব-ভার।

প্রযোজক দেব তাঁর পরবর্তী ছবির জন্য এবার ফ্রেমবন্দী করতে চলেছেন ৭৫ বছর বয়সী সুবাসিনী মিস্ত্রী’র এই সাহসী জার্নিকে। তাঁর শেষ প্রযোজিত ছবি ‘কবীর’ এখনো মুক্তি পায়নি। তবুও আগে থাকতেই পদ্মশ্রী সুবাসিনী মিস্ত্রী’র গল্প নিয়ে তৎপর হয়ে পড়লেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, ‘কবীর’র পর আবারও দেব’র প্রযোজনায় কাজ করতে চলেছেন পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায়।

তাকে জিজ্ঞাসা করাতে বলেন, “আমরা সুবাসিনী মিস্ত্রী এবং তাঁর পরিবারের সঙ্গে দেখা করি। ছবিটির স্বত্ত্ব দিতে রাজি হয়ে যায়, আমার অনেকদিন আগে থেকেই এই গল্পটা মাথায় ছিল।”

আন্তর্জাতিক নারী দিবসের দিন ছবিটির কথা প্রকাশ্যে আনেন দেব। এই বিষয়ে দেব বলেন, “তাঁরা কেবল ছবি তৈরি করেন না, তাদের মূল উদ্দেশ্য একটি গল্প বলা।” তবে এবার হয়তো অভিনেতা দেব’কে কিছুটা মিস করতে চলেছেন তাঁর ভক্তরা। কারণ ‘পদ্মশ্রী সুবাসিনী মিস্ত্রী’র গল্পতে দেব কোনো চরিত্রের হদিশ দিয়ে উঠতে পারেন নি কারণ কাস্টিং নিয়ে হয়ত বড় চমক অপেক্ষা করে আছে। তবে বিগত কয়েকটি ছবি ধরেই রুক্মিনী এবং প্রিয়াঙ্কা সরকারের উপস্থিতি একরকম কমন একটা ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়িয়েছে এবং এই ছবিতেও যে তাঁদের কোন এক চরিত্রে দেখার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না!