বাত’কর্মে ছড়াতে পারে করো’না ভাই’রাস! দেখুন কি বলছে বিশেষজ্ঞরা

0
603
প্রতীকী ছবি

এক নেটিজেন প্রশ্ন করেছিলেন যে আ’ক্রান্ত রোগী বাত’কর্মের মাধ্যমে এই রোগ ছড়িয়ে দিচ্ছে কিনা?‌ এই উদ্বেগের কারণ হল সম্প্রতি চিনের শীর্ষ মেডিক্যাল উপদেষ্টা ঝং নানশান জানিয়ে ছিলেন যে তাঁরা একঘরে করে রাখা করো’না ভাই’রাস রোগীর ম’ল ও প্র’স্রাবের নমুনা থেকে এই ভাই’রাস পেয়েছেন। বেজিংয়ের টংগজো জেলার রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ (‌সিডিসি)‌ কেন্দ্র থেকে এই বাত’কর্মের বিষয়টিকে ব্যাখা করা হয়েছে, সাধারণত কো’ভিড–১৯ অন্য পথ দিয়ে শরীরে ঢোকার সম্ভাবনা খুবই কম, যদি না কেউ প্যান্টবিহীন কোনও রোগীর কাছে এসে বাত’কর্মের ঘ্রাণ না নেয়।

করো’না আ’ক্রান্ত হাঁচলে বা কাশলে কিংবা করমর্দন করলে উলটোদিকের মানুষটির শরীরে প্রবেশ করতে পারে করো’নার জীবাণু। এমনকী নিশ্বাস-প্রশ্বাসেও ভাই’রাস ছড়ানোর সম্ভাবনা থেকে যায়। এ তথ্য এখন সকলেরই জানা।

প্রতীকী ছবি

আর কী কী ভাবে ভাই’রাস সংক্র’মিত হতে পারে, তা নিয়ে লাগাতার গবেষণা চলছে। তাল মিলিয়ে বাড়ছে মানুষের কৌতূহলও। তবে এই নতুন খোঁজ আরও এক উদ্বেগের কারণ সৃষ্টি করল যা হল বাত’কর্মের মধ্যে থাকা ভাই’রাসেও বি’ষ রয়েছে, যা নতুন করো’না ভাই’রাস ছড়িয়ে পড়ার রাস্তা হতে পারে। কিছু আতঙ্কিত ব্যক্তি মুখের এন৯৫–এর মাস্কের মতো তাঁদের পেছনেও মাস্কের মতো সুরক্ষা পরে রয়েছেন।

প্রতীকী ছবি

অস্ট্রেলীয় চিকিৎসক অ্যান্ডি ট্যাগ বেশ কিছু করো’না সংক্র’মক রোগীর পরিক্ষার পর জানিয়েছেন অল্প হলেও বাত’কর্ম থেকে করো’না ভাই’রাস ছরাতে পারে। অস্ট্রেলীয় চিকিৎসক অ্যান্ডি ট্যাগের করা পরিক্ষা অনুযায়ী ৫৫ শতাংশের ম’লে করো’না ভাই’রাসের উপস্থিতি পেয়েছেন। তবে এ ব্যপারে গবেষকরা জানিয়েছেন ম’লের ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র কণা বাত’কর্ম করার সময় বেড়িয়ে আসে, তবে এর ফলে করো’না ভাই’রাস ছরাতে পারে কিনা তা নিয়েই তারা সন্দেহাতীত। এবং এই বিষয়টিকে পুরোপুরি অস্বীকারও করছেন না তাঁরা।

প্রতীকী ছবি

ডা. ডার্ভিস এ ব্যপারে সকলকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছে শৌচাগার ব্যবহারের সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে, পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা বজায় রেখে চলতে হবে। গবেষকরা জানিয়েছেন আ’ক্রান্ত ব্যক্তি পোশাক পরা অবস্থায় বাত’কর্ম করলে ভাই’রাস ছড়িয়ে পরার সম্ভাবনা খুব কম। ডাক্তার মহলের একাংশ এটাই মনে করছেন, এবং বিজ্ঞানী মহল পুরোপুরি অস্বীকার করছে না।

প্রতীকী ছবি

বিনা পোশাকে আক্রান্ত বেশি পরিমাণ গ্যাস বের করার সময় যদি কেউ খুব কাছ থেকে সেই বাতাসে নিশ্বাস নেন, তাহলে ঝুঁকি রয়ে যায় বইকী। শৌচকর্মের পর শৌচালয়ের দরজা বন্ধ রাখারই পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। এছাড়া পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখতে নিয়মিত সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার কথাও বারবার মনে করিয়ে দিচ্ছেন। বাত’কর্ম থেকেও কোনওভাবে ভাই’রাস সংক্র’মণের ঝুঁকি থাকলেও মাস্ক ব্যবহারে তা অনেকটাই আটকানো সম্ভব।

সূত্র –