ভিড়ের মধ্যে রুমাল ছাড়া হাঁচি দেওয়ায় এক ব্যক্তিকে পেটালো করোনা আতঙ্কিত পথচারী

0
297

দেশ জুড়ে করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, ভিড়ের মধ্যে এক ব্যক্তি হাঁচি দেওয়ায় তাঁকে বেধড়ক মারধর করলেন অন্য এক ব্যক্তি। কীভাবে করোনার ছোবল থেকে নিজেকে বাঁচানো যায়, সেই ভাবনায় উদ্বিগ্ন আমজনতা। বাইকে করে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময়ে হেঁচে ফেলার অপরাধে রীতিমতো মারধর হল এক ব্যক্তিকে! বৃহস্পতিবার মহারাষ্ট্রের কোলাপুরের এই ঘটনাটির ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

প্রায় সমস্তরকম সাবধানতাই অবলম্বন করছেন প্রায় সকলেই। মুখে কনুই ঢাকা দিয়ে হাঁচি, কাশির পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকেরা। কিন্তু সেই পরামর্শ না মানায় এক যুবককে বেধড়ক মারধর করলেন পথচারীরা।

Image result for man-beaten-up-for-sneezing-in-public-in-maharashtra

পুলিশ জানিয়েছে, মোটরবাইকে চেপে এক ব্যক্তি রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন। তাঁর মুখে কোনও মাস্ক ছিল না। হঠাত্ই হাঁচি দেওয়ায় পথচলতি অন্য এক মোটরবাইক আরোহী ওই ব্যক্তিকে দাঁড় করিয়ে জিজ্ঞাসা করেন, কেন তিনি রুমাল চাপা দিয়ে হাঁচলেন না। যেখানে মহারাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে, এমন পরিস্থিতিতে এই কাজ করা গর্হিত অপরাধ। তবে তাতে কোনও উপযুক্ত জবাব পাননি ওই পথচারী। পরিবর্তে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় শুরু হয়। যদিও এই ঘটনায় পুলিশে অভিযোগ দায়ের হয়নি।

প্রতীকী ছবি

এই নিয়ে কথা কাটাকাটি এগোতে থাকলে এক সময়ে হেঁচে ফেলা ব্যক্তিকে মেরে বসেন অন্যজন। সাথে সাথে ভিড় জমে যায় পথে। গাড়ি থেকে যায় আশপাশে, ট্র্যাফিক জ্যাম তৈরি হয়। পুলিশ জানিয়েছে, কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি এই ঘটনায়। ট্রাফিক সিগন্যাল সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়ে ওই মুহূর্ত। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে ভিডিওটি। অনেকেই বলছেন, “হাঁচির প্রতিবাদ করে ঠিকই করেছেন ওই পথচারী।” তবে কারও কারও মতে, “সচেতনতা বাড়াতে সাধারণ মানুষকে বোঝাতে হবে। তা বলে প্রকাশ্যে কাউকে মারধর করা মানহানির শামিল।”

দেখুন সেই ভিডিও –

সূত্র – সংবাদ প্রতিদিন