টলিউডের যেসব নায়িকা প্লাস্টিক সার্জারি করিয়েছেন

0
298

যদি প্রশ্ন করা হয়, পর্দায় যেসব অভিনেত্রীর মুখাবয়ব দেখে মুগ্ধ হন তাদের এই সৌন্দর্য আদৌ কি প্রাকৃতিক? অপ্রিয় হলেও সত্য, বিনোদন দুনিয়ার বেশির ভাগ অভিনেত্রী পর্দায় নিজেকে আরও বেশি আকর্ষণীয় ভাবে উপস্থাপনের জন্য কৃত্রিমতার আশ্রয় নেন। জন্মগত ভাবে পাওয়া নিজের মুখাবয়ব বিভিন্ন রকম সার্জারির মাধ্যমে বদলে ফেলেন। হলিউড, বলিউড এমনকি টলিউড অভিনেত্রীরা আজকাল প্লাস্টিক সার্জারি করাচ্ছেন।

যাদিও সার্জারির বিষয়টি কেউ স্বীকার করতে চান না। টলিউডের এমন কয়েকজন প্রথম সারির অভিনেত্রী আছেন, যারা সৌন্দর্যবর্ধনে প্লাস্টিক সার্জারির ওপর ভরসা রেখেছেন। আজ জানব সেসব অভিনেত্রীদের কথা।

রাইমা সেন –

টলিউড অভিনেত্রী রাইমা সেনকে সার্জারির কথা বলা হলে তিনি বলেন, “লেজারের মাধ্যমে হেয়ার রিমুভ বা গ্ল্যামারস স্কিনের জন্য কিছু বেসিক জিনিস তো সকলেই করেন। তবে আমার ফিলার্স লিপস করানোর খুব ইচ্ছা আছে, কিন্তু মা এগুলো একদম পছন্দ করেন না।” তবে শোনা যায় দাঁতের শেপে কিছুটা পরিবর্তন করেছেন রাইমা, যাতে তার হাসি সুন্দর হয়। যদিও এসব প্রকাশ্যে স্বীকার করেন না এই অভিনেত্রী।

ঋতাভরী –

 

ঋতাভরীর মধ্যেও বদল এসেছে খুব সামান্য। ‘ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি ‘ ছবি দেখার সময় সকলের নজরে আসে। ললিতার চেহারা আর ঋতাভরীর চেহারার মধ্যে ফারাক লক্ষ করেন ফ্যানেরা।

সায়ন্তিকা ব্যানার্জী –

মিমি, নুসরাতের পর সায়ন্তিকার ছবিতেও বদল খুঁজে পেয়েছেন নেটিজেনরা। তার কমেন্ট সেকশনে ভক্তরা লিখেছেন যে, তিনি নাকি লিপ সার্জারি করিয়ে মোটা ঠোঁট করেছেন। এ নিয়ে কোনো রকম মন্তব্য করেননি সায়ন্তিকা।

মিমি চক্রবর্তী

টলিউডের প্রথম সারির এই নায়িকা লিপ ফিলার্স করেছেন বলে শোনা যাচ্ছে। ইনস্টাগ্রামে তারকারা নিজেদের প্রত্যেকটি মুহূর্তের ছবি আপলোড করেন সেখানেই মিমির পূর্বের ছবির সঙ্গে বর্তমানের ছবির কিছু পার্থক্য লক্ষ্য করা গেছে। তার ছবিতে ঠোঁট ও চোয়ালের আকৃতির কিছু পার্থক্য স্পষ্ট‌ই নজরে পড়েছে। এইসব ছবি দেখে নেটিজেনরা দাবি করেন, তিনি পাউটি লিপস করিয়েছেন।

মিমির বেশ কয়েকটি ছবিতে তো ভক্তরা স্পষ্ট লিখেই দিয়েছেন, “কেন যে লিপ সার্জারি করাতে গেলেন আপনি! আপনাকে আগেই ভালো লাগতো।”

লিপ ফিলার্স প্রসঙ্গে মিমি বলেছেন, “এই প্রশ্নটা আমাকে অনেক পুরুষ সহকর্মীই করেছেন। নিজের মুখে ছুরি-কাঁচি চালানোর কথা আমি ভাবতেই পারি না। ত্বকের পরিচর্যা করি। কিন্তু এই বাহ্যিক জিনিসের চেয়ে ভেতর থেকে সুস্থ হওয়াটাই আসল।”

মিমি যা-ই বলুক, নেটিজেনদের দাবি ‘গানের ওপারে’ ধারাবাহিকের পুপেকে আর আগের মতো দেখা যায় না। এই প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেছেন, “আমি যখন ‘গানের ওপারে’ করেছিলাম তখন আমার চিকবোন খুব স্পষ্ট ছিল। মাঝের কিছু বছরে আমার মুখে বেশ চর্বি জমেছিল ডায়েট এক্সারসাইজেই সেটা কমিয়ে ফেলেছি। যে ধরনের ট্রিটমেন্টের কথা আপনারা বলছেন সেটা কলকাতায় করা হয় কিনা আমি জানিনা। আর এই ট্রিটমেন্টের খরচ কম না।”

পায়েল সরকার –

পায়েল সরকারের লিপ সার্জারি কিন্তু ধরা ছোঁয়ার বাইরে। খুব খুঁটিনাটি বিশ্লেষণ না করলে তা বোঝা কঠিন। কারণ তাঁর ঠোঁটের লাইন প্রথম থেকেই স্পষ্ট। ওয়েব সিরিজে পরপর অভিনয়ে ক্লোজ শট দেখলে নজরে আসে তাঁর ভক্তদের।

নুসরাত জাহান

টলিউডের আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত জাহানের ঠোঁট নাকি আগের থেকে অনেক বেশি মোটা হয়ে গেছে। তার পাউটি লিপস দেখে অনেকেই বলেন যে, তিনি ফিলার্স করিয়েছেন। নুসরাতের আগের পোস্ট করা ছবির সঙ্গে নতুন ছবি মিলিয়ে দেখলেই ঠোঁট আর চোয়ালের আকৃতির পার্থক্য চোখে পড়ে। তবে এই বিষয়ে নুসরাত মুখ খোলেননি কখনো।

ঐন্দ্রিলা –

ঐন্দ্রিলার লিপ সার্জারি নিয়ে প্রচুর জল্পনা হয়েছিল। ফ্যানেরা প্রশ্নও করতেন প্রচুর। তাঁদের দুষ্টু ভোল বদলে ফেলায় অনেকেই দুঃখ প্রকাশ করেন। তবে সার্জারি খুব সামান্য বদল এনেছে তাঁর লুকে, তিনি প্রথম থেকেই খুব সুন্দর।

শুভশ্রী গাঙ্গুলী

টলিউডের আরেক জনপ্রিয় নায়িকা শুভশ্রী গাঙ্গুলীর ছবিতেও নাকি লিপ ফিলার্স স্পষ্টভাবে নজরে পড়ে বলে তার ভক্তরা দাবি করেছেন। অভিনেত্রীর অনুরাগীরা বলেছেন যে, শুভশ্রীর আগের সাধারণ চেহারায় ভালো লাগত, নায়িকাকে আগের চেহারাতে ফিরে আসতে অনুরোধ‌ও করেন তারা।

অনেক নেটিজেন এটাও দাবি করেছেন যে, শুভশ্রী মেলানিন থেরাপির সাহায্যে গায়ের রঙ ফর্সা করিয়েছেন। তবে নুসরাত ও সায়ন্তিকার মতো শুভশ্রীও এ নিয়ে কোনো মুখ খোলেননি।

সার্জারি প্রসঙ্গে নুসরাত, শুভশ্রী ও সায়ন্তিকা কিছু মন্তব্য না করলেও তাদের অন্ধ ভক্তরা বলেছেন গ্রুমিংয়ের সাহায্যেই নায়িকাদের এই পরিবর্তন ঘটেছে। লিপস্টিক পরার কায়দায় ও অনেক সময় মেকআপের ফলেও মুখের চেহারার বদল ঘটে বলে দাবি করেছেন তারা।