সালমান খানের ক্যারিয়ার শেষ করে দেবো – কেআরকে

0
481

এখন বলিউডের আলোচনার অন্যতম কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে এসেছে ‘রাধে : ইউর ওয়ান্টেড ভাই‘ সিনেমাটি। আইএমডিবি র‍্যাঙ্কিংয়ে যথেষ্ট নিম্নমানের ছবি বলেই ঘোষণা করা হয়েছে সালমানের ‘রাধে’-কে। এই সিনেমা নিয়ে রীতিমতো ক্ষুরধার সিনেমা সমালোচকরাও। আর তারই জেরে এক সমালোচকের বিরুদ্ধে মানহানির মামলাও করেছে সালমানের দল, যার ফলে স্বঘোষিত ক্রিটিক কমল আর খান ওরফে কেআরকে এখন উঠে এসেছেন রীতিমতো খবরের কেন্দ্রবিন্দুতে। সম্প্রতি সালমানকে উদ্দেশ একগুচ্ছ টুইট করেন কেআরকে।

প্রথম টুইটে কেআরকে লেখেন, ‘বিবেক, জন, অরিজিৎরা সাদাসিধে ছেলে। তবে এবার তারা ভুল লোকের সঙ্গে পাঙ্গা নিয়েছে।’ অপর একটি টুইটে ফের তিনি লেখেন, ‘বলিউডের ২০ জনেরও বেশি শিল্পী আমাকে ফোন করে পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন। তারা জানিয়েছেন, তারা যা করতে পারেননি তাই আমি করছি। কারণ তারা ওনার সাথে সরাসরি বিতর্কে জড়াতে চান না। কারণ তারা অনেকেই চান না ওকে সরাসরি শত্রু বানাতে।’

এরপর নাম উল্লেখ না করে সালমান খানের ক্যারিয়ার সম্পূর্ণ শেষ করারও বার্তা দেন তিনি। অন্য একটি টুইটে কেআরকে বলেন, ‘শুনেছি উনি অনেকের ক্যারিয়ার শেষ করে দিয়েছেন। যে কখনো ওনার বিরুদ্ধে কথা বলেছে তারই ক্যারিয়ার শেষ হয়ে গেছে।’ এরপরেই তিনি বলেন, ‘আমি ওনার ক্যারিয়ার শেষ করে ওনাকে রাস্তায় নামিয়ে আনব।’

সুশান্ত সিং রাজপুতের ঘটনার উল্লেখ করে কেআরকে জানান, যেটা সুশান্তের সাথে হয়েছে সেটা আর দ্বিতীয়বার বলিউডে করতে দেবেন না তিনি। বলিউড কারো বাবার নয়। সালমান খানের মিথ্যা কথার দোকান এবার বন্ধ হবার সময় হয়ে গেছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে সালমানের টিমের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ছবি সমালোচনার জন্য নয়। ক্রমাগত সালমানকে ছোট করার জন্যই মানহানির মামলা করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে। সালমান খানের টিমের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ‘কমল আর খান একগুচ্ছ টুইট এবং ভিডিওর মাধ্যমে সালমান খানকে ছোট করার চেষ্টা করেছেন। কারণ রাধে সম্পর্কে তিনি যে রিভিউ করেছেন তা ঠিক নয়। আর সে কারণেই তার বিরুদ্ধে এই মামলা দায়ের করা হয়েছে। কারণ, তিনি ক্রমাগত দেখিয়েছেন সালমান খান একজন দুর্নীতিপরায়ণ ব্যক্তি। এও বলেছেন, সালমান খান এবং তার ব্র্যান্ড বিভিন্ন অনৈতিক কাজ, প্রতারণা এবং অর্থ প্রতারণার সাথে যুক্ত।’

সব মিলিয়ে একদিকে যেমন সালমানের ‘রাধে’ সিনেমা উঠে এসেছে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে; তেমনি সমালোচক কেআরকের সঙ্গে তার এই যুদ্ধও হয়ে উঠেছে হট টপিক। এখন আগামী দিনে বিষয়টি কোনদিকে গড়ায় সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।