মাথার চাপ কমাতে, মাথার খুলি রাখা হল পেটের ভেতর! কলকাতায় হল বিরল অস্ত্রোপচার

0
193

মাথার চাপ কমাতে পেটের ভিতর রাখা হল মাথার খুলি, বিরল অস্ত্রোপচার শহর কলকাতায় দেশ জুড়ে করোনা ভাইরাসের জুড়ে লকডাউন অব্যাহত আর সেই লক ডাউনের মধ্যেই বিরল অস্ত্রপ্রচার হল শহর কলকাতায়।কোমা থেকে এক মহিলাকে বাঁচাতে খুলে নেওয়া হয়েছে মাথার খুলি, তিন মাসের জন্য সেটিকে পেটের ভেতর রাখা হয়েছে আর তিন মাস সম্পূর্ণ হলেই খুলে থেকে আবার যথাস্থানে বসিয়ে দেওয়া হবে এমনই সূত্রের খবর।

প্রতীকী ছবি

কলকাতার বাসিন্দা এক মহিলার মাথা ব্যথা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ভুগছিলেন। সাধারণ ভাবে মাথা ব্যথার ওষুধ খেয়েছিলেন, কিন্তু কিছু ক্ষণের জন্য কম তো আবার যাকে তাই। এই ভাবে লকডাউনের মধ্যে একদিন বাড়িতে তিনি সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েন তার পর তাঁকে পার্ক সার্কাসের ইনস্টিটিউট অফ নিউরো সায়েন্সে ভর্তি করা হয়।

প্রতীকী ছবি

তাতে দেখা যায় চাঞ্চল্যকর এক ছবি, মাথার যে ধমনী দিয়ে রক্ত চলাচল করে সেটি অত্যন্ত দুর্বল হয়ে পড়েছে আর বেলুনের মতো জায়গাটি ফুলে উঠেছে। এর সঙ্গে সঙ্গে মস্তিষ্কে ইন্ট্রো সেরিব্রাল হেমারেজ ধরা পড়েছে যার জেরে মহিলার বাঁচার সম্ভাবনা ছিল না বললেই চলে। টানা দশ দিন বিছানায় পড়েছিল সেই মহিলা। এর পরেই বিরলতম সার্জারির প্রস্তুতি নেন শল্য চিকিত্সক অমিত কুমার ঘোষ।

প্রতীকী ছবি

মাথার ওই অংশটির ওপর অর্থাৎ খুলি থেকে কেটে আপাতত রাখা হয়েছে পেটের মধ্যে। তিন মাস পর সুস্থ হলে তবেই ওই খুলিটি আবার যথাস্থানে লাগানো হবে। চিকিত্সকরা এই অপারেশন থেকে এক কথায় বিরল ধর্ম বলেছেন এবং ওই মহিলা আপাতত সুস্থ ও তাঁর জ্ঞান ফিরেছে।

সংগৃহীত – বাংলার প্রাণ