এই ফটোশপ আর্টিস্টকে যেরকম বলবেন সেরকমই ছবি এডিট করে দেবে, কিন্তু তারপর নিজেই পস্তাবেন

0
515

কখনো কখনো কিছু ছবি দেখে মনে হয়, এই ছবিটা যদি এরকম না হয়ে একটু অন্যরকম হতো তাহলে ছবিটা আরো ভালো লাগতো। এমত অবস্থায় যদি ভালো কোনো ফটোশপ এক্সপার্টকে পাওয়া যায় তাহলে তো খুবই ভালো হয়। তাকে বলা যায়, ছবিটা এডিট করে দিন না প্লিজ, আমি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করবো। কিন্তু ফটোশপ ওয়ালা সবসময়ই যে আপনার সাহায্য করবে এমনটা নয়। সে আপনার মজাও উড়াতে পারে।

জেমস্‌ ফ্রিডম্যান নামের একজন ফটোশপ মাস্টার লোকজনের অনুরোধে তাদের ফটো এমনভাবে এডিট করে দেন যেগুলি দেখার পর আপনিও হাসতে বাধ্য হবেন। জেমস্‌-এর বৈশিষ্ট্য হল, সে নিজের থেকে কিছু করে না, লোকজন তাকে যেরকমটা করার জন্য মেসেজ করে অনুরোধ করে, সে নিজের স্টাইলে তাদের ফটো এডিট করে দেয়। নিচে তার কাজের কয়েকটি নমুনা দেওয়া হল, দেখে নিন –

১. ভদ্রমহিলা জেমসকে অনুরোধ করেছিলেন ফটোশপের মাধ্যমে তার স্বামীর দাড়ি কামিয়ে দেওয়ার জন্য কিন্তু জেমস কি করেছেন দেখুন

২. ভদ্রলোক রাশিয়ার একটি সমুদ্রের বীচে শুয়েছিলেন, কিন্তু তিনি চাইছিলেন তার ছবিটিতে যেন আমেরিকার ব্যাকগ্রাউন্ড থাকে

৩. এই মহিলা তার স্তনকে বড় করার অনুরোধ জানিয়েছিলেন। ফলাফল দেখে নিশ্চয় আফসোস করবেন মহিলা।

৪. বাঁদিকের ভদ্রলোক হাফ প্যান্ট পরে লজ্জা পাচ্ছিলেন, তাই সকলের পড়নে হাফপ্যান্ট করার অনুরোধ জানিয়েছিলেন

৫. এই দুই বন্ধু ছবি থেকে পিছনের বাচ্চাটিকে সরিয়ে দিতে বলেছিলেন, কিন্তু জেমস-এর বাচ্চাটাকেই পছন্দ

৬. এই ছেলেটির ঘরে একা লাগছিল; তারপর নিজেই দেখুন ফলাফল

৭. ইনি সবকিছু জেমস-এর উপর ছেড়ে দিয়েছিলেন এবং জেমস তার প্রতিভা যথাযথই দেখিয়েছেন

৮. এই ব্যক্তির নিজের মুখটা কিছুটা শিশুসুলভ মনে হতো, তাই তিনি নিজেকে একটু বয়স্ক দেখাতে চেয়েছিলেন

৯. এই ছবিতে মেয়েটির পছন্দ হয়নি তার বন্ধুর ড্যাব স্টাইল; তাই ড্যাব স্টাইল সরিয়ে দিয়েছেন জেমস

১০. এই ছবিতে মেয়েটি একটি ‘অ্যাস’ চাইছিল তার পিছনে অর্থাৎ কোনো পুরুষ মানুষকে। কিন্তু জেমস সত্যি সত্যিই ছবিতে ‘অ্যাস’ যোগ করে দিয়েছেন

১১. এই মহিলা তার ছবি থেকে প্লাস্টিক জাতীয় বস্তুটি সরাতে বলেছিলেন, আর জেমস এর কাছে প্লাস্টিকের তৈরি বস্ত বলতে মহিলার বক্ষ যুগলকেই মনে হয়েছে

১২. এই যুবক তার গার্লফ্রেন্ডের চোখটা ঢাকা দিতে বলেছিলেন যাতে ছবিটি আরও রোম্যান্টিক লাগে, কিন্তু জেমস বিতিকিচ্ছিরি ব্যাপার ঘটিয়েছেন

১৩. মেয়েটি চেয়েছিল সে তার বাঁদিকের নয়, ডানদিকের বন্ধুর দিকে তাকিয়ে থাকতে চায়। জেমস সেটারও বন্দোবস্ত করে দিয়েছেন।

১৪. বাচ্চা ছেলেটির অনুরোধ ছিল তাকে তার বাবার থেকে লম্বা করে দেওয়ার

১৫. মেয়েটি চেয়েছিল তার ছবি দেখে যেন মনে না হয়, সে কাউকে প্রপোজ করছে। এবার জেমস-এর কীর্তি দেখুন

১৬. লোকটি চেয়েছিল, কালো স্ট্রাইপ টি-শার্ট পরা লোকটি যেন তার মাথার দিকে তাকিয়ে না থাকে।

১৭. মেয়েটির অনুরোধ ছিল, এই ছবিটিতে তার বয়ফ্রেন্ড কমফর্টেবল নয়, তাই তাকে কমফর্টেবল করে দিন

১৮. আমাদের দেশের লোকজনও পিছিয়ে নেই, এই বাঙালি যুবক নিজেকে কোনোও আমেরিকান সেলেব্রিটির মত দেখতে চেয়েছিলেন। ফলাফল নিজের চোখেই দেখুন।

১৯. এই যুবক ভবিষ্যতে আর কোনোদিন আয়রন ম্যান হওয়ার জন্য আর্জি জানাবে না

২০. এই মহিলা তার নিতম্বটি বড় করার অনুরোধ জানিয়েছিলেন

২১. এই যুবকের তার গার্লফ্রেন্ডের বক্ষযুগল একেবারেই পছন্দ নয়, তাই তিনি এটাকে বড় করতে বলেছিলেন। কিন্তু জেমস এর কীর্তি দেখুন

২২. এই মেয়েটি চেয়েছিল তার বাবা যেন তার দিকে তাকিয়ে না থাকে কারণ সেটা বেশ অস্বস্তিকর ছিল

আশা করি ছবিগুলি দেখে আপনারাও মজা পেয়েছেন। ভালো লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আর আপনাদেরও যদি নিজেদের ছবি ফটোশপে এডিট করানোর ইচ্ছে থাকে তাহলে জেমস-এর সাথে যোগাযোগ করতেই পারেন।

ছবি – James Fridman

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here