তবে কি নিকো’টিনেই জব্দ হচ্ছে করো’না – চাঞ্চল্যকর ব্যাখ্যা দিল ফ্রান্সের বিজ্ঞানীরা

0
589
প্রতীকী ছবি

করো’না ভাই’রাসের কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যেভাবে সং’কট ছড়িয়েছে, তাতে আত’ঙ্কিত বিশ্ববাসী। এই মুহুর্তে বিভিন্নভাবে চেষ্টা চালানো হচ্ছে, করো’না প্রতিরোধের। এই পরিস্থিতিতে একের পর এক বিভিন্ন রকম কথা শোনা যাচ্ছে করো’না প্রতিরোধের উপায় হিসেবে। বিশ্বের বিভিন্ন উন্নত দেশগুলি ইতিমধ্যেই দাবি করেছে, তাঁরা করো’নার প্রতিষেধক আবিষ্কার এর ব্যাপারে কয়েক ধাপ এগিয়ে গেছে। কিন্তু তার আগেই বিভিন্ন টোটকার আগমন ঘটেছে করো’নার প্রতিরোধ করতে।

এবার ফ্রান্সের একদল বিজ্ঞানী দাবি করলেন, যাঁরা ধূ’মপান করেন তাঁদের করো’না সংক্র’মণের ঝুঁকি অনেক কম। এ প্রসঙ্গে ফ্রান্সের বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, করো’না আক্রা’ন্তদের চিকিৎসার ব্যাপারে এবার সিগারেটে থাকা নিকো’টিনের সাহায্য নেবেন তাঁরা।

প্রতীকী ছবি

প্যারিসের এক হাসপাতালে ৩৪৩ জন গুরুতর করো’না আ’ক্রান্ত এবং ১৩৯ জন সামান্য করো’না লক্ষণযু্ক্ত রো’গীর উপর গবেষণা চালানোর পর এই তথ্য সামনে আসে। ফ্রান্সের Pasteur Institute-র বিখ্যাত নিউরোবায়োলজিস্ট জঁ পিয়ের শাংজিউ-র এই থিওরি অনুযায়ী নিকো’টিন শরীরের সেল রিসেপ্টরে আটকে যায়। ফলে সেই স্তর ভেদ করে করো’না ভাই’রাসে শরীরের কোষে প্রবেশ করতে পারে না। ফ্রান্সের স্বাস্থ্য দফতরের অনুমোদন পেলেই গবেষকদের এই দল পরবর্তী পর্যায়ের ক্লিনিকাল ট্রায়াল শুরু করবে বলে জানা গিয়েছে।

প্রতীকী ছবি

প্যারিসের বিখ্যাত হাসপাতাল পিতি-সালপাত্রিয়ার গবেষকদের গবেষণায় এ ধরনের তথ্য উঠে এসেছে বলে জানা গেছে। অন্যদিকে ওই গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, যাঁরা ধূমপান করেন তাঁদের শরীরে করো’নার সংক্র’মণ অনেক কম হয়েছে। গবেষকদের দাবি, সিগারেটের তামাকে এমন কিছু রয়েছে যা করো’না প্রতিরোধ করছে। তাই এবার বিজ্ঞানীদের কথায় জানা গেছে, ফ্রান্সের স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয় সবুজ সংকেত দিলেই আগামীদিনে তাঁদের লক্ষ্য প্যারিসের Pitie-Salpetriere হাসপাতালের স্বাস্থ্য কর্মীদের উপর নিকো’টিন প্যাচ লাগিয়ে পরীক্ষা করবেন তাঁদের করো’না সংক্র’মণ কাবু করতে পারে কি না।

প্রতীকী ছবি

শুধু স্বাস্থ্য কর্মীই নন, রো’গীদের শরীরেও এই নিকো’টিন প্যাচ লাগিয়ে দেখা হবে তাঁদের মধ্যে রো’গের লক্ষণ কমে কিনা। আইসিইউ রোগীদেরও উপরেও পরীক্ষা করা হবে বলে জানা গিয়েছে। এই সমীক্ষার ফল এর ওপর নির্ভর করেই এবার সিগারেটের দ্বারা করো’না প্রতিরোধের বিষয়টি নিয়ে গুরুত্ব সহকারে ভাবছেন চিকিৎসকরা এবং ক্লিনিক্যাল টেস্ট করতে চাইছেন তাঁরা। জানা গেছে, করো’না প্রতিরোধে ধূ’মপান যে কার্যকরী ক্ষমতা দেখিয়েছে তা শুধুমাত্র ফ্রান্সের বিজ্ঞানীদের গবেষণায় উঠে আসেনি, এর আগে চীনেও এরকম একটি গবেষণা চালানো হয়েছিল। সেখানেও জানা গেছে, সমগ্র জনগণের প্রায় ২৮ শতাংশ হারের তুলনায় প্রতি এক হাজার এর মধ্যে মাত্র ১২.৮ % রো’গী ছিলেন যাঁরা দৈনিক ধূ’মপান করতেন।

বিশেষজ্ঞদের মতে, করো’না সংক্র’মণ এখন এমন জায়গায় পৌঁছেছে, মানুষ যেকোন ভাবে এর থেকে মুক্তি পেতে চাইছে। তাই যেকোনো রকম সূত্রকেই যুক্তি দিয়ে বিচার করতে চাইছেন বিজ্ঞানীরা। তবে বিশেষজ্ঞদের একাংশের দাবি, কো’ভিড-১৯ কিন্ত ফুসফুস সংক্রান্ত রো’গ। সেক্ষেত্রে সিগারেট খেলেও ফুসফুসই আ’ক্রান্ত হয় সব থেকে বেশি। তাই একথা কখনোই জোর দিয়ে বলা যাবেনা, যাঁরা চেন স্মোকার, তাঁদের করো’না সংক্র’মণের সম্ভাবনা কম। তবে বিজ্ঞানের সবকিছুই সম্ভব এবং তার জন্য প্রয়োজন দীর্ঘ পরীক্ষা-নিরীক্ষার। এখন নিজেদের দাবির স্বপক্ষে ফ্রান্সের বিজ্ঞানীরা নতুন কোনও তথ্য সামনে আনতে পারেন কিনা সেদিকেই চোখ থাকবে সকলের।

প্রতীকী ছবি

তবে একই সঙ্গে মানুষকে সচেতন করে দিয়ে ফ্রান্সের স্বাস্থ্য আধিকারিক জেরোম সালোমঁ জানিয়েছেন, ‘নিকো’টিনের ক্ষ’তিকা’রক দিকটা কখনওই ভুলে গেলে চলবে না। যাঁরা ধূ’মপান করেন না তাঁরা যেন কোনও ভাবেই নিকো’টিন সাবস্টিটিউট ব্যবহার না শুরু করেন। এতে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার পাশাপাশি আসক্তি জন্মাতে পারে।’ প্রসঙ্গত, প্রতি বছর ফ্রান্সে মাত্রাতিরিক্ত ধূ’মপানের জন্যে প্রাণ হারান প্রায় ৭৫ হাজার মানুষ।

সূত্র –