প্রেমে ব্যর্থ হয়ে ব্যাস্ত স্টেশনে ধর্নায় বসেছে যুবক, জানতে পেরে কান ধরে টানতে টানতে বাড়ি নিয়ে গেলো বাবা

0
646

এক সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যম আজ বিকাল এর প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, গোবরডাঙা এলাকার নকপুলের বাসিন্দা এক যুবক মছলন্দপুর এলাকার এক যুবতীর সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হয় মেধাবী এক কলেজ ছাত্রীর সঙ্গে৷ দীর্ঘদিন ধরে চলে ওই যুবকের প্রেমপর্ব৷ অভিযোগ, গত আগস্টে তাঁদের মধ্যে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়৷ ভেঙে যায় প্রেমিক প্রেমিকার সম্পর্ক৷ কিন্তু সম্পর্ক ভাঙার কয়েকদিন পর ফের প্রেমিকার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা শুরু করেন প্রেমিক যুবক ৷

ফোনে না পেয়ে বারংবার মেসেজ পাঠাতে থাকেন ওই যুবক৷ কিন্তু কোনও ভাবেই প্রেমিকার সঙ্গে যোগাযোগ না হওয়ার প্রতিবাদ জানিয়ে গোবরডাঙা স্টেশনের তিন নম্বর প্লাটফর্মে সাদা কাগজে আলতা দিয়ে লেখা প্রেমিকার নাম।পোস্টারে সাঁটানো প্রেমিকার ছবি৷

প্রতীকী ছবি

ব্যস্ত স্টেশানের ওপর প্রেমের জন্য যুবকের ধর্নার ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই জনতার মধ্যে তুমুল কৌতূহল সৃষ্টি হয়৷ প্লাটফর্মের উপর দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে তা উপভোগ করতে থাকেন পথচলতি জনতা৷ গোটা বিষয়টি বিদ্যুৎ গতিতে ছড়িয়ে পড়ে গোটা গোবরডাঙা চত্বরে৷

খবর পৌঁছে যায় প্রেমিকের বাবার কাছেও৷ ছেলের কীর্তি শুনে নিজেকে আর সামলাতে পারেননি তিনি৷ তড়িঘড়ি স্টেশনে ছুটে গিয়ে ছেলের খোঁজ শুরু করেন৷ ৩ নম্বর প্লাটফর্মে ছেলেকে প্রেমের জন্য ধর্নায় বসে থাকতে দেখে চূড়ান্ত ক্ষোভ প্রকাশ করেন ব্যক্তি৷

প্রতীকী ছবি

হিন্দি ছবির  ভিলেনের মতো ধর্না মঞ্চে হাজির প্রেমিকের বাবা৷ ভরা স্টেশনে জনতার ভিড় ঠেলে ছেলের কান টেনে হিড়হিড় করে টানতে টানতে নিয়ে গেলেন বাড়ি৷ চাঞ্চল্যকর ঘটনার সাক্ষী গোবরডাঙার তিন নম্বর স্টেশন৷ প্রেমের ভূত ছাড়াতে ছেলেকে কার্যত গৃহবন্দি করে রাখার সিদ্ধান্ত নেন ওই ব্যক্তি৷