কলকাতা সম্পর্কে এই অবাক করা তথ্যগুলি অনেকেরই অজানা

0
1146

কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী এবং ১৪ মিলিয়নেরও বেশি লোকের বসবাস কলকাতা ও তার আশেপাশের এলাকায়। এমন একটি শহরের বিবরণ খুঁজে পাওয়া কঠিন। দারুণ বৈপরীত্যময় একটি শহর এটি, কলকাতার মধ্যে একটি রোমাঞ্চকর পুরাতন বিশ্বের ছোঁয়া রয়েছে এবং এখানকার শান্ত জীবন যা আপনি মুম্বাই, দিল্লী, বেঙ্গালুরু বা চেন্নাই মত ভারতের অন্যান্য মহানগরীতে খুঁজে পাবেন না। হুগলি নদীর তীরে দাঁড়িয়ে, কলকাতা পূর্ব ভারতের ব্রিটিশদের ট্রেডিং হাব হিসেবে গড়ে ওঠে এবং লন্ডনের বাইরের ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শহর হিসেবে পরিণত হয়। আজ আমরা আপনাদের সামনে কলকাতা শহর সম্পর্কে এমন কয়েকটি চমকপ্রদ তথ্য নিয়ে এসেছি যেগুলি জানলে অবাক হবেন।

আসুন দেখে নেওয়া যাক আমাদের প্রিয় শহর কলকাতার কিছু অবাক করা তথ্য –

১. আয়তন

আয়তনের দিক দিয়ে দেখলে মুম্বাই, বেঙ্গালুরুকে পিছনে ফেলে দিয়েছে কলকাতা। আয়তনের বিচারে দিল্লীর ঠিক পরেই দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কলকাতা।

২. গুরুত্বপূর্ণ শহর

ব্রিটিশ সাম্রাজ্যকালে কলকাতা দেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শহর ছিল। বলা বাহুল্য দেশের রাজধানী ছিল। সম্পূর্ণ ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ শহর ছিল কলকাতা, লন্ডনের ঠিক পরেই।

৩. সিটি অফ জয়

কলকাতাকে বলা হয় আনন্দের শহর, খুশির শহর। কিন্তু আপনি কি জানেন, কলকাতাকে “সিটি অফ প্যালেসেস”, “সিটি অফ প্রসেশনস্‌” এবং “কালচারাল ক্যাপিটাল অফ ইন্ডিয়া” বলা হয়”।

৪. সবচেয়ে ব্যস্ত স্টেশন

অনন্য ট্রেনের নিয়মানুসারে দৈনন্দিনভাবে পরিচালনা করার ভিত্তিতে হাওড়া স্টেশনটি ভারতের সবচেয়ে ব্যস্ততম।

৫. কলকাতা স্টেশন

আপনি কি জানেন, ২০০৬ সাল অবধি কলকাতা নামের কোনো স্টেশন ছিলনা। সমস্ত এক্সপ্রেস ও লোকাল ট্রেন হাওড়া স্টেশন এবং শিয়ালদহ স্টেশনেই ঢুকতো। বর্তমানের কলকাতা স্টেশনটি একটি রেলওয়ে গুডস্‌ টার্মিনাল ছিল, কলকাতা স্টেশন মূলত চিতপুর স্টেশনকেই বলা হয়।

৬. চিড়িয়াখানা

আপনি কি জানেন কলকাতার চিড়িয়াখানা দেশের সবচেয়ে পুরনো চিড়িয়াখানা।

৭. হাওড়া ব্রিজ

হাওড়া ব্রিজ সমগ্র বিশ্বের কাছে কলকাতার গর্ব। আপনি কি জানেন এই ব্রিজ সারা বিশ্বের দীর্ঘতম ক্যান্টিলিভার ব্রিজগুলির মধ্যে একটি এবং আমাদের দেশের মধ্যে সবচেয়ে দীর্ঘতম।

৮. নোবেলজয়ী

স্যার রোনাল্ড রস, সি. ভি. রমন, মাদার টেরেজা, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, অমর্ত্য সেন একই শহর থেকে পাঁচজন নোবেল পেয়েছিলেন, এই কৃতিত্ব খুব কম শহরেরই আছে। এছাড়াও সত্যজিৎ রায় চলচ্চিত্রে প্রথম অস্কার পান।

৯. লাইব্রেরি

কলকাতার ন্যাশনাল লাইব্রেরি দেশের সর্ববৃহৎ পাবলিক লাইব্রেরি।

১০. পোলো ক্লাব

কলকাতা হয়তো রাজাদের শহর ছিল না ঠিকই, কিন্তু কলকাতার পোলো ক্লাব সারা বিশ্বের সবচেয়ে পুরনো।

১১. গলফ্‌ ক্লাব

রয়্যাল ক্যালকাটা গলফ্‌ ক্লাব হল, গ্রেট ব্রিটেনের বাইরে তৈরি হওয়া প্রথম গলফ্‌ ক্লাব।

১২. ইডেন গার্ডেন্স

দর্শকাসনের বিচার ইডেন বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম মাঠ।

১৩. ক্রিকেট ক্লাব

কলকাতায় অবস্থিত Calcutta Cricket and Football Club হল বিশ্বের দ্বিতীয় সবচেয়ে পুরাতন ক্রিকেট ক্লাব। এক নম্বর স্থানে রয়েছে MCC.

১৪. ফুলবল লিগ

১৮৯৮ সালে শুরু হওয়া ক্যালকাটা ফুটবল লিগ দেশের সবচেয়ে পুরনো ফুটবল লিগ এবং সারা বিশ্বে সবচেয়ে পুরাতনের লিগের দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।

১৫. কলেজ স্ট্রীট

কলকাতায় অবস্থিত এই জায়গাটি হল বই প্রেমীদের কাছে স্বর্গ। কলেজ স্ট্রীট সবচেয়ে বড় পুরাতন বই বিক্রির মার্কেট হিসেবে সারা বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। এখানে সমস্ত রকম বইয়ের প্রথম সংস্করণ থেকে শেষ সংস্করণ অবধি সবই পাওয়া যায়। মজা করে বলা হয় যে, কলেজ স্ট্রীটে যদি কোনো বই না পাওয়া যায়, তাহলে বুঝে নিতে হবে সেই বইয়ের অস্তিত্ত্বই নেই।

১৬. ট্রাম

কলকাতা হল সারা বিশ্বের গুটিকয়েক শহরের মধ্যে একটি, যে শহরে ট্রাম চলে।

১৭. মেট্রোরেল

কথায় আছে, what Bengal thinks today, India thinks tomorrow, সেরকমই কলকাতায় মেট্রো চালু হওয়ার অনেক পর দিল্লি এবং মুম্বাইতে মেট্রো চালু হয়।

১৮. হাতে টানা রিক্সা

খারাপ বলুন বা ভালো বলুন, কলকাতাই ভারতের একমাত্র শহর যেখানে হাতে টানা রিক্সা রয়েছে।

১৯. বোটানিক্যাল গার্ডেন

পৃথিবীর সর্ববৃহৎ গাছ রয়েছে এই বোটানিক্যাল গার্ডেনে। এই বিখ্যাত বটগাছটির পরিধি প্রায় ৩০০ মিটার।

২০. বইমেলা

কলকাতার বইমেলা হল পৃথিবীর সর্ববৃহৎ অবাণিজ্যিক বইমেলা।

২১. বিড়লা তারামণ্ডল

এই তারামণ্ডলটি এশিয়ার মধ্যে বৃহত্তম এবং সারা বিশ্বে দ্বিতীয় বৃহত্তম।

২২. খিদিরপুর ডক

এটি ভারতের সবচেয়ে পুরনো বন্দর এবং দেশের একমাত্র নদীকেন্দ্রিক বন্দর।

কলকাতার সম্বন্ধে আরও কিছু অজানা তথ্য যেগুলি মিস করে গেলাম, সেগুলি কমেন্ট করে জানাতে পারেন। ভালো লাগলে ফেসবুকে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here