এই গ্রামের শিশুদের লজেন্সের বদলে মুখে দেওয়া হয় সিগারেট

0
975

ভিয়েল দে সালগুয়েইর পর্তুগিজ গ্রামের এপিফ্যানী উদযাপনটি একটি ঐতিহ্য । যা প্রতি বছর প্রচুর বহিরাগতদের সমাগম করে । সেই উৎসবে বাবা-মায়েরা তাদের বাচ্চাদেরকে ৫ বছরের কম বয়সী, লজেন্স খাওয়ার বদলে সিগারেট ধূমপান করার জন্য উৎসাহ দেয় । আর এখানকার শিশুরাও পরম আনন্দে সেই সিগারেট খায় । এই বিশ্বে এমন জায়গাও রয়েছে যেখানে বড়রাই ছোটদের উৎসাহ দেন ধূমপানে । স্থানীয়রা বলে যে বহু শতাব্দী ধরে খ্রিস্টান এপিফ্যানী এবং শীতকালীন দ্রাক্ষারস-র সাথে উদযাপিত, জীবন উদযাপনের অংশ হিসেবে অনুশীলনটি চলছে ।

source – africacablenetwork.com

কিন্তু কেউ নিশ্চিত না যে এটি কিভাবে প্রতীকী হয় বা কেন বাবা-মা তাদের সন্তানের জন্য সিগারেটের প্যাকগুলি কেনার জন্য এবং কেন তাদের উৎসাহ দিতে অংশ নেয় । পর্তুগালের এই গ্রামে ক্রিসমাসে আয়োজিত হয় একটি বিশেষ অনুষ্ঠান, যার নাম ‘কিং ফেস্ট’ । দু’দিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠান চোখ ধাঁধানো । আর শেষ হয় প্রার্থনার মধ্য দিয়ে । অনুষ্ঠানে আগুন জ্বালিয়ে তার চারপাশে নাচেন গ্রামবাসীরা । তার সঙ্গে চলে গান বাজনাও ।

source – theguardian.pe.ca

দুই দিনের উদযাপন শুক্রবার শুরু হয় এবং শনিবার শেষ হয় । এতে বনফায়ারের আশেপাশে নৃত্য, পাইপার সঙ্গীত বাজানো এবং নিয়ম অনুযায়ী, একজনকে রাজা সাজানো হয় । “রাজা” প্রচুর পরিমাণে মদ এবং খাবার বিতরণ করে । সেই অনুষ্ঠানেরই একটা অংশ হল, শিশুদের সিগারেট খাওয়া । পর্তুগালে ১৮ বছর বয়স না হলে দোকান থেকে তামাক কেনা যায় না । কিন্তু এই গ্রামে এই উৎসবের সময় সে নিয়ম মানা হয় না, এটাই রীতি ।

source – ghananewsonline.com.gh

৩৫ বছর বয়েসী কফি শপ মালিক গিলহেরমিনা মাতুয়াস তার কন্যাকে সিগারেট দেওয়ার কারণ হিসাবে বলেন, “শিশুরা ধূমপান করতে পারে না, তারা শুধু ধোঁয়া টানে ও ছেড়ে দেয় । এবং এটি শুধুমাত্র আজ ও আগামীকাল, এরপর শিশুরা আর সিগারেট চায় না ।”

source – Kidspot

গ্রামেরই এক প্রবীণ ব্যক্তির কথায়, এই আজব নিয়ম অবশ্য শুধু উৎসবরে দু’দিনের জন্যেই । আসলে এই উৎসবে গ্রামবাসীরা সেইসব কাজই করেন, যেগুলি তারা সারাবছর করতে পারেন না । শিশুদের ধূমপানের বিষয়টিও সেরকমই একটি । সব মিলিয়ে ওই গ্রামে শিশুদের নিয়ে তাদের অভিভাবকদের এমন ধ্যানধারণা অর্থহীন বলেই মনে করছেন অনেকে ।

source – dailymail.co.uk

অন্যান্য ইউরোপীয় দেশগুলির মতো, পর্তুগালও ধূমপান কমাতে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে, যার মধ্যে স্নোডোরের উপর আংশিক নিষেধাজ্ঞা রয়েছে ।