ধোনির বাইক মিউজিয়ামের বাইকগুলি দেখলে অবাক হবেন

0
750

ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির বরাবরই বাইকের প্রতি একটা আলাদা ভালোবাসা রয়েছে। অনেকেই হয়তো খেয়াল করেছেন যে, খেলা শেষে ম্যাচের পুরষ্কারে ধোনি বা অন্য কোনো প্লেয়ার বাইক পেলে, ধোনি সেই বাইক মাঠেই চালাতেন। এছাড়াও প্রায়শই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন নিজের বাইকের ছবি বা নিজের বাইকের যত্ন নেওয়ার ছবি।

অগুণতি বাইক। কোনওটা নিজে কিনেছেন। কোনওটা উপহার পাওয়া। কোনওটা আবার ম্যান অফ দ্য ম্যাচের প্রাপ্তি। এত বাইক একসঙ্গে রাখার জাগয়া অনেকদিন ধরেই খুঁজছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। তাঁর বরাবরের ইচ্ছে ছিল, একখানা দেখার মতো বাইক মিউজিয়াম করবেন!

বাইক সংগ্রহের নিরিখে যে কোনও বাইকপ্রেমীকে হারাতে পারেন ধোনি।

বুদ্ধ সার্কিটে হেলবয়-এর মতো সুপারবাইক চালাতে দেখা গিয়েছে ধোনিকে।

হার্লে ডেভিডসন ফ্যাট বয়, নিনজা জেডএক্স১৪আর-এর মতো দামি বাইক রয়েছে ধোনির কাছে।

”যে কোনও বাইক হাতে পেলেই আমি খুব ভালবেসে চালাই।” একবার এক সাক্ষাতকারে বলেছিলেন বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক।

বাইকের সঙ্গে সঙ্গে চার চাকারও সখ রয়েছে ধোনির।

রাজদুত ৩৫০ ধোনির জীবনের প্রথম বাইক। কিন্তু সেটির এখন ভগ্নদশা, তবুও তিনি এটা সারাজীবন রেখে দিতে চান।

ধোনি সব সময়ই বলে এসেছেন, তিনি একটি মোটর ট্রেনিং সংস্থা প্রতিষ্ঠা করতে চান।

হেলক্যাট, ডুকাটি, বিএসএ, নর্টনের মতো দামি কোম্পানির বাইক রয়েছে এমএসডির সংগ্রহে। রয়েছে ভিনটেজ রাজদুত ৩৫০।

ক্রিকেট না থাকলে ধোনি নিজে হাতে প্রতিটা বাইকের পরিচর্যা করেন।

সব মিলিয়ে প্রায় ১০০ বাইক রয়েছে ধোনির সংগ্রহে। রয়েছে বেশ কিছু দামি সুপারবাইক।

ধোনির সেই গ্যারেজ। ধোনি-পত্নী সাক্ষী এই আলিশান গ্যারাজের ছবি ইনস্টাগ্রামে দিয়ে লিখলেন, ”ছেলেটা ওর খেলনাগুলোকে সত্যি খুব ভালবাসে।”

ধোনির এই নবনির্মিত বাইক মিউজিয়াম যেকোনো বাইক প্রেমীরা ঘুরে দেখতে চাইবেন। আপনারা কি বলেন? আপনাদের মতামত কমেন্ট করে জানান।

Source