ফুসফুস দান করলেন এক চেন স্মোকার! ফুসফুসের ভয়ানক অবস্থার ভিডিও দেখলে চমকে উঠবেন

0
76
metro.co.uk

ধূমপান করে ফুসফুসের অবস্থা এক্কেবারে পিচ মাখা রাস্তার মতো নাকি অ্যাশট্রের ছাইয়ের মতো? এখন আবার কী মনে করছেন যে মৃত্যুর পর দেহদান করবেন? আপনার দেহের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ যিনি পাবেন, তাঁর অবস্থাটা ভেবে দেখেছেন কখনও! চিনে ঘটল এমনই কাণ্ড। সম্প্রতি চিনে এক চেইন স্মোকারের ফুসফুসের ভিডিও ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে। সেই ভিডিও দেখলে যে কারও চক্ষু চড়কবৃক্ষে উঠতে বাধ্য!

প্রতীকী ছবি

ব্যক্তির বয়স ৫২। ৩০ বছর ধরে লাগাতার ধূমপান করেই চলেছেন তিনি। ভিডিয়োতে পরিস্কার দেখা যাচ্ছে, দিনের পর দিন ধূমপান করে ওই ব্যক্তির ফুসফুস এক্কেবারে কালো হয়ে গিয়েছে। ভিডিওটি চিনের ইউকসি পিপলস হসপিটালের। পুড়ে কালো হয়ে যাওয়া ফুসফুস এখানেই দান করেন এক ব্যক্তি। ডাক্তার চেন জিয়াংগু এবং তাদের অঙ্গ প্রতিস্থাপনকারী দল এই ফুসফুস নিয়ে গবেষণা চালাচ্ছেন।

স্বাভাবিক ফুসফুস

ডাক্তার চেন জিয়াংগু জানিয়েছেন যে ব্যক্তি এই ফুসফুস দান করেছেন তাঁর মস্তিষ্কের মৃত্যু ঘটেছে। কিন্তু এই ফুসফুসের ওই ভয়ংকর অবস্থা দেখার পর অন্য কোনও রোগীর দেহে তা বসানো সম্ভব হচ্ছে না।

যদি কোনও রোগীর দেহে এই ফুসফুস প্রতিস্থাপন করা হয় তবে তাঁর লাং ক্যালসিফিকেশন , বুলোস লাং ডিজিস এবং পালমোনারি এমফাইসেমার মতো নানানতর রোগ হতে পারে। ডাক্তার জিয়াংগুর কথায়, ‘এই ফুসফুসের প্রতিস্থাপন করতে অস্বীকার করছে আমার টিম। যদি কোনও ব্যক্তি অতিরিক্ত বেশিই ধূমপান করেন তাহলে তাঁদের ফুসফুস কখনই অন্য কাউকে দান করা উচিৎ নয়।’

metro.co.uk

 

নিজের ফুসফুস দান করার আগে এই ব্যক্তির সিটি স্ক্যান করা হয়নি। কারণ তার আগেই এই রোগীর মস্তিষ্কের মৃত্যু হয়। ডাক্তার জিয়াংগু বললেন, ‘প্রাথমিকভাবে অক্সিজেন ইন্ডেক্সের পরে যখন ফুসফুসগুলি দেখি তখন মনে হয়েছিল তা ট্রান্সপ্লান্ট করা যাবে।’

দেখে নিন সেই ভয়ানক ভিডিওটি –

সূত্র – এইসময়

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here