বলিউডের সেরা কিসার নায়িকা

0
1118

খোলামেলা পোশাকেই পর্দার সামনে হাজির হচ্ছেন বলিউডের এ প্রজন্মের অভিনেত্রীরা। আর কেউ কেউ তাদের সাহসিকতা প্রদর্শনের জন্য আরো এক ধাপ এগিয়ে যাচ্ছেন। তারা এখন দুধভাতের মতোই অবলীলায় অভিনয় করছেন অ’ন্তর’ঙ্গ দৃশ্যে। বলিউডের সিনেমা গুলোতে নায়ক-নায়িকার চু’মু দৃশ্য নিয়মিত বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমন একটা সময় ছিল যখন অ’ন্তর’ঙ্গ দৃশ্য বলতে একে অন্যের হাত ধরা অথবা খুব বেশি হলে বুকে জড়িয়ে নেওয়া পর্যন্ত সীমাবদ্ধ ছিল। এখন দিন সম্পূর্ণ বদলে গেছে।

বলিউডে সিরিয়াল কিসারের তকমা যেন একচেটিয়া নায়কদেরই দখলে। কিছুদিন আগে পর্যন্ত এ শিরোপা ছিল ইমরান হাশমির। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই চু’মু ও অ’ন্তর’ঙ্গ দৃশ্যে অভিনয় করে পর্দায় তাপমাত্রা বাড়িয়ে দিয়েছেন তিনি।

তবে এখন তাঁর জায়গা নিয়েছেন অনেকেই। বরুণ ধাওয়ান থেকে সিদ্ধার্থ মালহোত্রা, বলিপাড়ার হট নায়করা একের পর এক ছবিতে সাহসী চু’ম্বন দৃশ্যে অভিনয় করে চলেছেন। কিন্তু শুধু অভিনেতারাই নন, নায়িকারাও এখন কম যান না। আলিয়া ভাট কিংবা ইয়ামি গৌতম, আলাদা আলাদা নায়ককে সঙ্গে নিয়েও নায়িকারাও একের পর এক ছবিতে চু’ম্বন দৃশ্যে অভিনয় করছেন। সিরিয়াল কিসার নায়িকাদের তালিকায় তাহলে কে কে থাকতে পারেন? আসুন দেখে নেওয়া যাক।

ক্যাটরিনা কাইফ –

 

হৃত্বিকের ঠোঁটেই সবচেয়ে বেশিবার চু’মু খেয়েছেন বলিউডের এই নায়িকা। এই দুই শিল্পীকে অ’ন্তর’ঙ্গ ভাবে দেখা গেছে ‘জিন্দেগি না মেলে দোবারা’ ও ‘ব্যাং ব্যাং’ ছবিতে। এছাড়া পর্দায় তিনি কিং খানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হয়েছেন ‘জব তাক হ্যায় জান’ ছবিতে। শাহরুখ মূলত ক্যাটরিনার সাথেই সিনেমায় প্রথম চু’মুর দৃশ্য করেছেন। এছাড়াও ‘ধুম থ্রি’ ছবিতে আমির খানের বিপরীতেও অভিনয় করেছেন।

আনুশকা শর্মা –

আনুশকা শর্মা যখন ‘ব্যান্ড বাজা বারাত’ সিনেমায় চু’মুর দৃশ্যে অভিনয় করেন তখন তিনি শুধু আলোড়নই তোলেন নি, সেই সঙ্গে গণমাধ্যমেও খবরের শিরোনাম হয়েছেন। এরপর এবছরের ‘দিল ধাড়াকনে দো’তেও তাঁর ও রণবীর সিং-এর চু’মুর দৃশ্য আলোড়ন তোলে। তিনি ‘বদমাশ কোম্পানি’ ছবিতে শহীদ কাপুরের ঠোঁটেও চু’মু খেয়েছেন পর্দায়। ‘বোম্বে ভেলভেটে’ও তাকে রণবীর কাপুরের সঙ্গে চু’মুর দৃশ্যে দেখা গেছে।

পরিণীতি চোপড়া –

পরিনীতি চোপড়া হিন্দি সিনেমাতে ক্যারিয়ার শুরু করেছেন ২০১১ সালে। এর মধ্যে গোটা পাঁচেক ছবিতে লিপ লক দৃশ্যে অভিনয় করে ফেলেছেন। ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় ছবি ‘ইশকজাদে’তেই চু’মুর দৃশ্যে অর্জুন কাপুরের সঙ্গে তাকে দেখেছে দর্শক। পরের ছবি ‘শুদ্ধ দেশি রোমান্স’-এ সুশান্ত সিং রাজপুতের সঙ্গে আবারও বো’ল্ড দৃশ্য ও লিপ লক। ‘হাসি তো ফাসি’ ছবিতে ঠোঁট মিশিয়েছেন সিদ্ধার্থ মালহোত্রার সঙ্গে। পরের ছবি ‘দাওয়াত-ই-ইশক’-এ আদিত্য রায় কাপুরের ঠোঁটে। এখনও অবধি তার শেষ ছবি ‘কিল দিল’-এ তাঁকে লিপ লকে পাওয়া গিয়েছিল রণবীর সিংয়ের সঙ্গে। তার অভিনীত সব ছবিতেই চু’মুর দৃশ্যে কাজ করেছেন।

আলিয়া ভাট –

প্রথম ছবি ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার’-এ সিদ্ধার্থ মালহোত্রার সঙ্গে লিপ লকে পাওয়া গিয়েছিল তাকে। ‘হামটি শর্মা কি দুলহনিয়া’ ছবিতে বরুণ ধাওয়ানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করেছিলেন তরুণী আলিয়া। মোটে ২২ বছর বয়স তার, ক্যারিয়ারের বয়স মাত্র ৪। কিন্তু এর মধ্যে আরও কয়েকটি ছবিতে লিপ লক দৃশ্যে পাওয়া গিয়েছে তাকে। ‘টু স্টেটস’ ছবিতে অর্জুন কাপুরের সঙ্গে ঠোঁট ঠোঁট মিলিয়েছিলেন তিনি। তার এখনও অবধি শেষ ছবি ‘শানদার’-এও শহিদ কাপুরের সঙ্গে চু’ম্বন দৃশ্যে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে তাকে। অর্থাৎ তার প্রায় প্রত্যেকটি ছবিতেই কিস সিনে আছেন তিনি। এটা নিঃসন্দেহে বলা যায় একুশ বছর বয়সী আলিয়া ভাট বলিউডে সবচেয়ে ভালো চু’মু খেতে পারা নায়িকা।

ইয়ামি গৌতম –

‘ভিকি ডোনার’ ছবিতে আয়ুশ্মান খুরানার সঙ্গে বো’ল্ড দৃশ্য এবং লিপ লকে পাওয়া গিয়েছিল ইয়ামিকে। কিছুদিন আগে মুক্তি পাওয়া ‘বদলাপুর’ ছবিতে বরুণ ধাওয়ানের সঙ্গে আবার লিপ লকে পাওয়া গেল তাকে। খুব বেশি ছবি করেন নি ইয়ামি। তবে এই তিন বছরের মধ্যে উল্লেখযোগ্য দুটি ছবিতেই লিপ লকে পাওয়া গেলো তাকে।

শ্রদ্ধা কাপুর –

বলিউড মাতাতে ঠোঁটে ঠোঁট মেলাতে দক্ষ শ্রদ্ধা কাপুরও। ‘আশিকি ২’তেই নায়ক আদিত্য রায় কাপুরের সঙ্গে অ’ন্তর’ঙ্গ দৃশ্যে অভিনয় করেছিলেন। ‘এক ভিলেন’ ছবিতে একই দৃশ্যে তাঁকে পাওয়া গিয়েছিল সিদ্ধার্থ মালহোত্রার বিপরীতে। ‘হায়দার’ ছবিতে শহিদ কাপুরের সঙ্গেও রোম্যান্টিক দৃশ্যে দেখা গিয়েছে তাকে। সেখানেও ছিল লিপ লক দৃশ্য। ‘এবিসিডি ২’ছবিতে তার ঠোঁট মিশেছে বরুণ ধাওয়ানের ঠোঁটে।

হুমা কুরেশি –

হিন্দি সিনেমার যাত্রা শুরু ২০১২ থেকেই। ২০১৩ সালে ‘এক থি ডায়েন’ ছবিতে ইমরান হাশমির সঙ্গে লিপ লক দৃশ্যে পাওয়া গিয়েছিল তাকে। ২০১৪ সালের ‘দেড় ইশকিয়া’ ছবিতে তাকে চু’ম্বন দৃশ্যে পাওয়া গিয়েছিল আরশাদ ওয়ারশির সঙ্গে। ২০১৫তে মুক্তি পেয়েছে ‘বদলাপুর’। এ ছবিতেও নায়ক বরুণ ধাওয়ানের সঙ্গে চু’ম্বন ও বো’ল্ড দৃশ্যে দেখা গিয়েছিল তাকে।