জেনে নিন আপনার প্রিয় তারকাদের আসল নাম!

0
1168

নামে কি আসে যায়? হয়তো আপনার নাম নিয়ে আপনার কোনও অভিযোগ নাও থাকতে পারে। কিন্তু বলিউড তারকাদের ক্ষেত্রে নাম একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ। অনেক বলিউড তারকা আছেন যারা নিজেদের নাম বদলেছেন নামকে আরও আকর্ষণীয় ও গ্রহণযোগ্য করে তোলার জন্য। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই নাম পরিবর্তন করতে হয়েছে সিনেমার পরিচালক বা প্রযোজকের কথা শুনে। এসব নাম পরিবর্তনের কারণ একটাই, হয়তো নামটি সেকেলে বা মোটেও আকর্ষণীয় নয়।

আসুন দেখে নেওয়া যাক কয়েকজন বলিউড তারকাকে যারা নাম পরিবর্তন করে বলিউডে রাজ করছেন –

শাহরুখ খান :

প্রায় ২৩ বছর হয়ে গেল বলিউডে রাজত্ব করছেন শাহরুখ খান। এখন বলিউড কা বাদশা তিনি। কিন্তু এই নাম তাঁর ফ্যানেদের দেওয়া। শাহরুখের আসল নাম কী জানেন? আবদুল রশিদ খান। তাঁর ঠাকুমা এই নাম রেখেছিলেন। পাঁচ বছর বয়স পর্যন্ত তাঁর এই নামই ছিল। কিন্তু বাবা মায়ের কাছে ফিরে আসার পর তাঁরা নাম বদলে দেন আবদুলের। নাম হয় শাহরুখ খান।

সালমান খান :

শাহরুখ আর সালমানের মধ্যে একটা অদ্ভুত মিল আছে। সলমানেরও নাম ছিল আবদুল রশিদ। কিন্তু সেই সঙ্গে বাবার নামটাও যুক্ত ছিল। সলমানের পুরো নাম, আবদুল রশিদ সেলিম সালমান খান। সেখান থেকে ছোটো করে সলমান খান। ইন্ডাস্ট্রিতে এই নামেই বিখ্যাত তিনি।

আমির খান :

মহম্মদ আমির হুসেন খান। এটাই আমিরের আসল নাম। কিন্তু এখানেও সেই কাটছাঁটের ব্যাপার। অতোবড় নামটাকে ছোটো করে নিয়েছেন আমির।

হৃতিক রোশন :

হৃতিকের ঠাকুরদা ছিলেন রোশন লাল নাগরথ। মিউজিক ডিরেক্টর ছিলেন তিনি। তাঁর মৃত্যুর পর রাকেশ রোশন বাবার নামেই ছেলের নাম রাখবেন ভেবেছিলেন। কিন্ত মানুষ যা ভাবে, তা থোড়াই হয়। তাই রোশন লাল নাগরথের পরিবর্তে নাম হয় হৃতিক রোশন।

রজনীকান্ত :

প্রথম জীবনে বাস কন্ডাকটার ছিলেন রজনীকান্ত। নাম ছিল শিবাজি রাও গাইকোয়াড। সেখান থেকেই সিনেমায় আসা। পরিচালক বালাচন্দর তাঁর নাম দেন রজনীকান্ত।

 রণবীর সিং :

পুরো নাম ছিল রণবীর সিং ভাবনানি। সেখান থেকে রণবীর সিং। নিজের বাকি পদবীটি নাম থেকে ছেঁটে বাদ দিয়ে দিয়েছেন রণবীর।

ক্যাটরিনা কাইফ :

বিদেশে জন্ম, বড় হয়ে ওঠা। ফলে বিদেশি ছোঁয়া ছিল ক্যাটরিনার নাম। তাঁর নাম ছিল কেট তুরকোট। কিন্তু যখন তিনি ভারতে আসার সিদ্ধান্ত নিলেন, নাম বদলে রাখলেন ক্যাটরিনা কাইফ। যতটা সম্ভব দেশি করার চেষ্টা আর কী।

প্রীতি জিন্টা :

প্রীতম জিন্টা সিং। প্রীতির আসল মান এটা হলেও ছোটো থেকে তিনি প্রীতি হিসেবেই জনপ্রিয়। ছোটো থেকেই তিনি টমবয় টাইপের। ফলে প্রীতম জ়িন্টা সিংয়ের থেকে প্রীতি নামটাই তাঁকে মানাতো বেশি। যখন বলিউডে আসার সিদ্ধান্ত নিলেন প্রীতি, তখন প্রীতমের বদলে প্রীতি নামটাই বেছে নিলেন তিনি। কিন্তু তিনি সম্প্রতি এই খবর মিথ্যে বলে জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, তাঁর বরাবরই প্রীতি জিন্টা নাম ছিল।

সাইফ আলি খান :


সাইফ নয়। নাম ছিল তাঁর সাজিদ আলি খান। ছিল কেন? এখনও আছে। এখনও নাম বদলাননি সাইফ। বিয়ের সার্টিফিকেটে তাঁর এই সাজিদ আলি খান নামটাই আছে। শুধু সিলভার স্ক্রিনেই তিনি সাইফ।

অক্ষয় কুমার :


রাজীব হরি ওম ভাটিয়া। এটাই বলিউডের অ্যাকশন হিরোর আসল নাম। কিন্তু এই নাম রাখলে লোকে বলবে কী। আর তাছাড়া একটা কুমার-টুমার গোছের কিছু নামের সঙ্গে জুড়তে চাইছিলেন তিনি। তাই রাতারাতি রাজীব হরি ওম ভাটিয়া হয়ে গেলেন অক্ষয় কুমার।

অজয় দেবগন :


অজয়ের আসল মান বিশাল দেবগন। কিন্তু তাঁর নামটা খুব একটা পছন্দ ছিল না। তাই ডেবিউ ছবি ‘ফুল অউর কাঁটে’-র আগে নাম বদলে ফেলেন তিনি। বিশাল থেকে অজয়।

মিঠুন চক্রবর্তী :

সবশেষে আসা যাক মিঠুনদার কথায়। এনার আসল নাম গৌরাঙ্গ চক্রবর্তী। ইনিও নাম পরিবর্তন করেছিলেন।

এছাড়াও আরও অনেক অভিনেতা-অভিনেত্রী আছেম যারা অল্প-বিস্তর নাম পরিবর্তন করেছেন।