চলে গেলেন জনপ্রিয় অভিনেতা কাদের খান

0
497

নতুন বছরের শুরুটা খুব একটা ভালো হলো না সিনেমাপ্রেমীদের জন্য। ৮১ বছর বয়সে দেহত্যাগ করলেন জনপ্রিয় বলিউড অভিনেতা কাদের খান। কানাডায় গত ১৬-১৭ দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। শ্বাসকষ্টজনিত অসুখে দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছিলেন ৮১ বছরের অভিনেতা। শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন তিনি। সম্প্রতি শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে রাখা হয় স্পেশাল ভেন্টিলেশনে। জানা যায়, কানাডাতে ছেলে সরফরাজ ও পুত্রবধূ সহিষ্ঠার সঙ্গে ছিলেন তিনি। এর পর তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন৷

কাদের খানের মৃত্যুর খবরের মধ্যে আরও দুঃখের বিষয় হল, অসুস্থ থাকার সময় কানাডায় তাঁর সাথে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করা কেউই দেখা করতে যায়নি। বয়স বাড়ার সাথে সাথে নানারকম শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন অভিনেতা কাদের খান। গত দু’বছর ধরে হুইল চেয়ারেই ঘোরাফেরা করতেন কাদের খান।

অভিনেতা কাদের খানের মৃত্যু সংবাদ সোমবার রাত থেকেই গুজব হতে থাকে, মঙ্গলবার সকালে অভিনেতার ছেলে মৃত্যু সংবাদটি দেন।

অভিনেতা কাদের খান এমন একজন অভিনেতা যাঁকে পছন্দ করেন না, এরকম মানুষ কমই আছে। কাদের খানের ব্যাপারে এই বিষয়গুলি হয়তো অনেকেই জানেন না।

১৯৩৭ সালের ২২ অক্টোবর কাবুলে জন্ম অভিনেতা কাদের খানের।

১. যথেষ্ঠ উচ্চ-শিক্ষিত ছিলেন কাদের খান। আরবি ভাষায় মাস্টার্স করেছিলেন তিনি, এছাড়াও একটি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের প্রফেসারও ছিলেন। অভিনয় জগতে আসার আগে তিনি একজন সিভিল ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন।

২. আমাদের দেশের মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষজনের জন্য অনেক জনকল্যাণমূলক কাজ করেছেন কাদের খান।

৩. কাদের খান তাঁর সিনেমার হাতেখড়ি করেন দিলীপ কুমারের সিনেমায় কাজের মাধ্যমে। কলেজে পড়াকালীন এক থিয়েটারে কাদের খানের অভিনয় দেখে তাঁকে সিনেমার জন্য সই করান দিলীপ কুমার।

৪. শুধুমাত্র একজন দক্ষ অভিনেতাই নন, কাদের একজন দক্ষ লেখক। অনেক সিনেমার স্ক্রিপ্ট এবং সংলাপ লিখেছেন কাদের খান।

৫. বলিউড অভিনেত্রী জারিন খান এবং কাদের খানের পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে একথা অনেকেই জানেন না। কাদের খানের ছেলে সরফরাজ খান, যাকে আপনারা ‘রামাইয়া ভাস্তাভাইয়া’, ‘তেরে নাম’ সিনেমায় দেখেছেন।

৬. অনেক দিন সিনেমা থেকে দূরে ছিলেন কাদের খান। শেষ সিনেমা, ‘আমান কে ফারিস্তে’ (২০১৬)।

৭. অমিতাভ বচ্চনের জন্য সংলাপ লিখতেন কাদের খান। প্রায় ৩৩টির বেশি সিনেমায় অমিতাভ বচ্চনের জন্য সংলাপ লিখেছিলেন কাদের খান। তাঁদের জুটি ছিল অনবদ্য।

৮. রাজেশ খান্না, জিতেন্দ্র, অমিতাভ বচ্চন থেকে অনিল কাপূর, গোবিন্দা, সলমন খান, অর্জুন কপূর—সহ বলিউডের প্রায় সমস্ত অভিনেতার সঙ্গেই তাঁর কাজ করার রেকর্ড রয়েছে।