“২৩ ডিগ্রীতে ছড়ায় না করোনা ভাইরাস” – ইনি এমস্ এর ডাক্তার অর্কপ্রভ সিনহা নন, জানুন আসল ব‍্যাপার

0
894

সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দাবি করা হয়েছে ২৩ ডিগ্রির বেশি উষ্ণতায় করোনাভাইরাস ছড়ায় না। নীল জামা, চশমা পরা এক ভদ্রলোকের ভিডিও। ভিডিওতে শেয়ার করে ফেসবুকে অথবা হ‍োয়ার্টএ‍্যাপে বলা হয়েছে ক্যাপশনে লেখা, ”এমস থেকে ডাক্তার অর্কপ্রভ সিনহা রিসেন্ট আপডেটের ডিটেলস পাঠিয়েছেন। ভীষণ জরুরি এটা শোনা। Please go through the recent update by Dr. Arkaprava Sinha from.AIIMS”.

৪ মিনিট ১২ সেকেন্ড সময়ের ওই ভাইরাল ভিডিওতে দেখা গেছে হাতে পোস্টার নিয়ে বক্তব্য পেশ করতে দেখা যায়। তাঁর হাতের ওই পোস্টারে লেখা আছে, ”করোনাভাইরাস ও তাপমাত্রা, যেসব এলাকার তাপমাত্রা ২৩ ডিগ্রির উপরে সেখানে এই রোগ ছড়ায় না”।

সূত্র

এরপর ভিডিওতে তিনি ব্যাখ্যা করছেন, “২৩ ডিগ্রির উপরে করোনাভাইরাসের জীবাণু ছড়ায় না”। তাঁর দাবি, “দেখা গিয়েছে ২৩ ডিগ্রির উপরে এই জীবাণু কয়েক মিনিটের বেশি বাঁচে না, এইটা খুব গুরুত্বপূর্ণ একটা পয়েন্ট”। চ্যালেঞ্জ করেই বলছেন, “যে সব দেশে বসন্ত কিংবা গ্রীষ্ম চলে এসেছে সেখানে অত গুরুতর কিছু নয়”। দাবির স্বপক্ষে তুলে ধরেছেন কিছু পরিসংখ্যান। “এপ্রিল থেকেই এই রোগ অতটা গুরুতর থাকবে না”, এটাও তাঁর চ্যালেঞ্জ। এই ভরসার কথা সকলের মধ্যে ছড়িয়ে দিয়ে মনে আশা জাগাতে বলছেন, শেয়ার করতে বলছেন, আতঙ্কিত হতে, প্যানিকড হতে বারণ করছেন।

তিনি পোস্টারটি রেখে বলতে শুরু করেন, ”৭০ ডিগ্রির বেশি তাপমাত্রায় কোরানভাইরাস মারা যায়। মুখ ও নাক থেকে বেরনো লালা জাতীয়-ড্রোপলেটের মাধ্যমে ছড়ায় করোনা।… ২৩ ডিগ্রির উপরে যখন ড্রোপলেটটি বেরলো মাটিতে পড়ার সাথে সাথে শুষে যাচ্ছে টেম্পারেচারে। দেখা গেছে যে এই ২৩ এর উপরে কয়েক মিনিটের উপরে বাঁচে না। তথ‍্য বলছে, প্রথমত এই ভিডিয়োটি ভুয়ো নয়। কিন্তু ভদ্রলোক এমস্-এর ডাক্তার অর্কপ্রভ সিংহ নন। দ্বিতীয়ত, ২৩ ডিগ্রির উপরে করোনাভাইরাসের জীবাণু ছড়ায় না বলে উনি যে দাবি করেছেন, তার সমর্থনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু-র কোনও বয়ান বা ঘোষণা এখনও পর্যন্ত নেই।

Tujhe kitna chahne lage" -Dr.Shobuj - YouTube

এই দাবি যে সঠিক, তা প্রমাণ করার মতো কোনও গবেষণাপত্রও আমাদের হাতে আসেনি। যাদিও পোস্টার বা তাঁর বক্তব্যে কোনও সেলসিয়াস বা ফ্যারেনহাইটের কথা বলেননি। তবুও তাঁর বক্তব্য থেকে ধরে নেওয়া যায় তিনি বাতাসের উষ্ণতার কথা বলছেন। তাই সেলসিয়াসের কে আমরা উষ্ণতার একক ধরে নিলাম। এই মুহূর্তে ২৩ ডিগ্রির বেশি তাপমাত্রায় কোভিড-১৯ ড্রপলেটের সক্ষমতা নিয়ে যে দাবি ওই ব্যক্তি করেছেন তার সারবত্তা নেই। মুম্বই ও কলকাতার তাপমাত্রা ২৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের চেয়ে বেশি এখন।

দেখুন সেই ভিডিও –

ফেসবুকে খোঁজ করে দেখা গেল অর্কপ্রভ সিংহ নামে এমস-এর একজন চিকিৎসক থাকলেও ইনি তিনি নন। এই ভাইরাল ভিডিওর ব্যক্তিটি বাংলাদেশের চিকিংসক জাকির হোসেন সবুজ। ইউটিউব সার্চে জাকির হোসেন সবুজ লিখতেই খুলে যায় এই চ্যানেলটি। সেখানেই স্ক্রল করলে পাবেন এই ভিডিয়োটি। গত ৫ মার্চ যা পোস্ট হয়। গোটা ভিডিয়োটি ১০ মিনিট ৪৯ সেকেন্ডের। তারই শেষের ৪ মিনিট ১১ সেকেন্ড সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। চিকিৎসক জাকির হোসেন সবুজ বাংলাদেশের উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজের চিকিৎসক।

মাঝেমধ্যেই নানা বিষয়ে ভিডিয়ো পোস্ট করেন। ডক্টর জাকির’স চেম্বার নামে একটি ফেসবুক গ্রুপও রয়েছে তাঁর। ৫ মার্চের ভিডিয়ো নিয়ে বিতর্ক হচ্ছে দেখে তিনি ১৪ মার্চ একটি পাল্টা ভিডিয়োও ইউটিউবে আপলোড করেন। এই ভিডিওটিতে ওই ব্যক্তিকে ‘UAMCH’ লেখা অ্যাপ্রন পরে থাকতে দেখা যাচ্ছে। ইউএএমসিএইচ বাংলাদেশের একটি বেসরকারী মেডিকেল কলেজ যার সম্পূর্ণ নাম ”উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ।

সূত্র

বর্তমানে জাকির হোসেন সবুজের ফেসবুক প্রোফাইলটি লকড্ করা আবস্থায় হয়েছে।হোয়াটস‌্অ্যাপ, ফেসবুক, টুইটারে যা-ই দেখবেন, তা-ই বিশ্বাস করবেন না। টুক করে শেয়ারও করে দেবেন না। বিশেষত এই আতঙ্কের মধ্যে তো নয়ই। এ ভাবেই ছড়িয়ে পড়ে ভুয়ো খবর।

সূত্র-