নাকের ফুটোয় তেল দিলে, পেটের অ্যাসিডে ডুবে মরবে করো’না – দাবি করেন রামদেব বাবা

0
373

লকডাউনের মধ্যেও দেশে করো’না আ’ক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এমন পরিস্থিতিতে টেস্ট কিট সরবরাহ করতে যখন হিমশিম খাচ্ছে সরকার, ঠিক সেই সময় নিজে নিজে করো’না পরীক্ষার উপায় বাতলালেন যোগগুরু রামদেব বাবা। তাঁর দাবি, আর হাসপাতাল ডাক্তারখানায় ছোটাছুটি করতে হবে না কাউকে। বরং সহজ উপায়ে বাড়িতে বসেই এ বার করো’না হয়েছে কি না জানতে পারবেন সাধারণ মানুষ।

যোগগুরু রামদেব বাবা দাবি করেন যে, কোনও ব্যক্তি যদি টানা এক মিনিট শ্বাস ধরে রাখতে পারেন তবে তিনি করো’নায় আক্রান্ত নন। এটি উপসর্গযুক্ত এবং উপসর্গবিহীন উভয় ব্যক্তির ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য বলে জানান তিনি।

তাঁর মতে আপনি যদি এক মিনিট শ্বাস বন্ধ করে রাখতে পারেন তবে বুঝতে হবে আপনার শরীরে করো’না হানা দেয়নি। বয়স্কদের ক্ষেত্রে এটা অন্তত ৩০ সেকেন্ড। কারণ করো’না সবার আগে আক্রমণ করে ফুসফুসে। ফুসফুসের ক্ষমতা কত বুঝতে পারলেই গোটা বিষয়টি স্পষ্ট হবে আপনার কাছে। সম্প্রতি এক বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যমের একটি ইভেন্টে এসে ঠিক এমনই দাওয়াই দিলেন এই যোগগুরু। পাশাপাশি আরও জানালেন করো’না ঠেকানোর আরও একটি মোক্ষম দাওয়াই রয়েছে তাঁর কাছে। কী সেই মহৌষধি?

কোনও ওষুধ বা ভ্যাকসিন নয়। COVID-19 এর সঙ্গে লড়াই করার জন্য রামদেবের টোটকা একটি বিশেষ প্রাণায়ম। আর সেই প্রাণায়মের নাম উজ্জ্বয়ী। তাঁর কথায়, “এর সাহায্যে প্রথমেই আপনি আপনার গলাকে সংকুচিত করবেন। পরক্ষণেই নাকের সাহায্যে বায়ু নিয়ে কিছু ক্ষণ ধরে থাকতে হবে। তারপর ধীরে ধীরে বায়ু নিঃসরণ করতে হবে।” পাশাপাশিই তাঁর আরও দাবি, এই টেস্ট তিনি নিজে করে দেখেছেন যে, এর দ্বারা COVID-19 অবশ্যই ঠেকানো সম্ভব।

করো’নাকে নিঃশেষ করার তত্ত্ব দিয়ে রামদেব বলেন, যোগের পাশাপাশি নাকের ছিদ্রে দু ফোঁটা সর্ষের তেল দিলে, শ্বাসনালীতে যদি করো’না ভাই’রাস থাকে, তবে তা পেটে চলে যাবে। আর সেখানে অ্যাসিডে করো’নার জীবাণু মারা পড়বে। বিশ্বজুড়ে করো’নার তাণ্ডবে মরিয়া হয়ে এর দাওয়াই বা প্রতিষেধক খুঁজছেন বিজ্ঞানীরা। এমন সময়ে একের পর এক আজব ও অবৈজ্ঞানিক ‘তত্ত্ব’ দিয়ে যাচ্ছেন অনেকেই। এই তত্ত্বদাতাদের সারিতে ট্রাম্পের পর এবার দেখা গেল রামদেবকেও। অবশ্য এ ধরনের তত্ত্ব নিয়ে কোনও মন্তব্যই করার প্রয়োজনবোধ করছেন না চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা।

সূত্র –