ফুচকায় রয়েছে মলের জীবাণু!

0
856

বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ( ভারপ্রাপ্ত) মোঃ মাহবুব কবীর বলেছেন, বাংলাদেশের প্রতিটি খাদ্যে বৃদ্ধি পেয়েছে ভেজালের প্রবণতা। বলা যায় ভেজাল খাদ্যে বাংলাদেশ। ফুচকায় আছে মলের জীবাণু।  মুজিববর্ষ উপলক্ষে আজ বুধবার বেলা ১১টায় বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি)  নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে শিক্ষার্থীদের সচেতনতামূলক কর্মশালা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়া বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের আয়োজনে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

২০১৩ সালে নিরাপদ খাদ্য আইন পাশ করায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘যেহেতু আমাকে ভারপ্রাপ্ত চেয়াম্যান রাখা হয়েছে আমি এ জায়গাতেই থাকতে চাই। এখানে থেকে নিরাপদ খাদ্যের জন্য কিছু করতে চাই।’

তিনি আরো বলেন, প্রতিটা খাবারই অনিরাপদ। যেগুলো ভালো পাই সেটা মিরাকেল। সকালে কীটনাশক ব্যবহার করে বিকেলে সেই খাবার বা সবজি আমরা বাজারে তুলি। সেটা নির্দিষ্ট সময় পার না হতেই আমরা খাই। নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে এ বছরেই প্রতিটা জেলায় একজন করে খাদ্য কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বহিরাঙ্গন দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. নাজমুল হকের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্য প্রফেসর ড. আব্দুল আলীম, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার আবু হেনা মোস্তফা কামাল, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক তাবিউর রহমান প্রধান, বেরোবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার কিবরিয়া।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলে নিম্নমানের খাবার পরিবেশন এবং স্বাস্থ্যকর পরিবেশের কথা উল্লেখ করে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের কাছে নিরাপদ ও স্বাস্থ্যকর খাদ্য সরবরাহের জন্য অনুরোধ করেন বেরোবি শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি তুষার কিবরিয়া। তিনি বলেন, ক্যাম্পাসে কোনো দোকান নেই। শিক্ষার্থীরা কিছু খেতে চাইলে ক্যাম্পাসের বাইরে গিয়ে খেতে হয়। আর বাইরের খাবার মোটেও স্বাস্থ্যকর নয়। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আব্দুল আলীম বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য আইনের উপর কথা বলেন। তিনি এই আইন সম্পর্কে সকলকে অবগতি করান। মানুষের জীবন রক্ষার জন্য নিরাপদ খাদ্য প্রাপ্তির অধিকার নিশ্চিতকরণের ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তাবিউর রহমান প্রধান বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, এটি নি:সন্দেহে ভালো উদ্যোগ। আমরা যদি এসব মেনে চলতে পারি তবে সুস্থ খাদ্য পরিবেশন এবং ভক্ষণের মাধ্যমে সুস্থ একটি সমাজ গঠন করতে পারব। এ সময় তিনি উপস্থিত সকল শিক্ষার্থীকে খাদ্যের ব্যাপারে যথাযথ সচেতন হওয়ার জন্য আহ্বান জানান। এ ছাড়াও আলোচনা শেষে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন প্রধান অতিথি মাহবুব কবীর।