যেসব বাঙালি অভিনেত্রীদের বো’ল্ডনে’সে উষ্ণতা বেড়েছে বলিউডে

0
563

গোটা ভারতই জানে আর মানে বঙ্গ বিউটি কথাটা। কিন্তু এই প্রতিবেদন যে সব বাঙালি অভিনেত্রীদের কথা বলা হবে তারা শুধু বিউটি নয়, তাদের বো’ল্ডনে’সেও বলিউডকে আউট করেছে। এইসব বাঙালি অভিনেত্রীরাই বলিউডে সে’ক্স বোম্ব-এর কাজ করেছে।

নন্দনা সেন –

নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ অর্মত্য সেন ও পদ্মশ্রী বিজয়ী নবনীতা দেব সেনের মেয়ে নন্দনা সেন হলেন এমন একজন যাকে বলিউড বলে পারফেক্ট ফিগার বিউটি। নন্দনা অনেকটা বেশি বয়েসেও শুরু করেও তার বো’ল্ড ফিগার দিয়ে মাত করেন।

রাজা রবি বর্মাকে নিয়ে সিনেমা। নাম রং রসিয়া। সেই ছবিতে ন’গ্ন হয়েছিলেন নন্দনা সেন। ফ্রন্টাল নুডিটি। ছবিতে সেটি দেখানোও হয়েছিল। তবে ছবিটি সহজে মুক্তি পায়নি। একাধিক ফিল্ম ফেস্টিভালে ঘোরার অনেক পর রিলিজ় করে থিয়েটারে।

লিজা রে –

আসলে নাম লিজা রায়। কিন্তু মডেল দুনিয়ার কাঁপিয়ে গোটা দেশ তাঁক চেনে লিজা রে নামে। বলিউডে তাঁর প্রথম সিনেমা ছিল ২০০২ সালে। আফতাব শিবদাসানির বিপরীতে। কসুর ফিল্মে। সেই শুরু। এরপর আর গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডে পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি লিজা রে-কে।

তাঁর গোটা জীবনে অনেক সংঘর্ষ। অনেক চড়াই উতরাই। অনেক লড়াই। ভূগছিলেন ক্যা’নসা’রে। তারপর কিছুদিন আগেই লিজা রে স্বয়ং জানিয়েছেন যে, তাঁর ক্যা’নসা’র সেরে গিয়েছে। লিজার রে অনেকটা সময়ই কাটান সোশ্যাল মিডিয়ায়। সম্প্রতি তিনি তাঁর ছেলেবেলার একটি ছবি পোস্ট করেছেন।

নিজেই জানিয়েছেন, ছবিটি যখনকার, তখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র তিন বছর। ছবিটিতে চোখ রাখলেই বুঝতে পারবেন, সেই ছেলেবেলার লিজারও চোখে যেন লেগে ছিল রহস্যের ছোঁয়া। যে চোখের রহস্য লিজা রে-কে বড় হওয়ার পর খ্যাতির শিখরে নিয়ে গিয়েছে। এবার নিজেই দেখে নিন ছোট্ট লিজাকে।

রেহা চক্রবর্তী –

মিষ্টি মুখের রেহা ছোট পর্দা কাঁপিয়ে বড় পর্দায় মাতান। সোনালি কেবিল নামের একটি সিনেমায় সোনালি দারুণভাবে চোখ টানেন।

ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত –

 

ম্যায়া মের পত্নী অউর উই। বা আনসা। কিংলা মিত্তাল ভার্সেস মিত্তাল। ঋতুর বো’ল্ডনেস বোল্ড বলিউড।

মুনমুন সেন –

মুনমুন সেন ছিলেন বলিউডের আল্টিমেট বো’ম্বসে’ল। বঙ সেল থেকে ব’ম্বসে’ল।

রাইমা সেন –

কোয়েনা মিত্র –

নান ছোট বড় বিউটি কম্পিটিশান জিতে ২০০২ সালে বলিউডে প্রথম পা দেন কোয়েনা। সিনেমার নাম ছিল রোড। একটা ছোট্ট রোলে অভিনয় করে পথ চলা শুরু হয়েছিল কোয়েনার। তারপর ২০০৪ সালে সঞ্জয় দত্তের সঙ্গে মুশাফির নামের এক সিনেমায় আইটেম ড্যান্স নেচে গোটা বলিউডকে নাড়িয়ে দেন।

ওই গানে কোয়েনা গাড়ি ধুতে ধুতে যে নাচটি করেন, তার উষ্ণতা মাপতে হলে থার্মোমিটার ভেঙে যায়। এরপর কোয়ানা এক খিলাড়ি এক হাসিনা, ইনসান, আপনা সামনা মানি মানি নামের সিনেমাগুলিতে অভিনয় করেন। ২০০৩ সালে ঢোল সিনেমায় তাঁর খুদাগাওয়া আইটেম ড্যান্সটি তুমুল জনপ্রিয় হয়। তার ছোট্ট বলিউডি কেরিয়ারে কোয়েনা জনপ্রিয় ছিলেন বো’ল্ডনে’স-এর জন্য।

তনুশ্রী দত্ত –

তিনি মিস ইন্ডিয়া ২০০৪। কিন্তু তার থেকে বেশি পরিচিতি পেয়েছিলেন ২০০৫-এ বলি টাউনে তাঁর ডেবিউ ছবি ‘আশিক বানায়া আপনে’-র মাধ্যমে। তিনি বঙ্গকন্যে তনুশ্রী দত্ত। ‘আশিক বানায়া আপনে’তে সি’রিয়াল কি’সার ইমরান হাশমির সঙ্গে তনুশ্রীর কেমিস্ট্রি মনে ধরেছিল দর্শকদের।

তনুশ্রী অভিনয়েও পারদর্শী ছিলেন। ২০০৫-এ মুক্তি পায় তাঁর আরও একটি ছবি ‘চকলেট’। তনুশ্রী মানেই ছিল আ’গুন। খুব ছোট্ট কেরিয়ারে উত্তাপ ছড়িয়েছিলেন তনুশ্রী।

নন্দিতা দাশ –

বলিউডের ব্ল্যাক বিউটি। দীপা মেহতার সিনেমা ফায়ারে শাবানা আজমি-র সঙ্গে নন্দিতার সমকা’মী সম্পর্ক ঝড় তোলে। নন্দিতা হলেন সুন্দরী, হট। ‘ফায়ার’, ‘আর্থ’, ‘বায়ান্দর’-এর মত বহু অর্থপূর্ণ ছবিতে কাজ করেছেন নন্দিতা। পরিচালকের ভূমিকায় তার প্রথম ছবি ‘ফিরাক’ বহু পুরস্কার জিতেছে।

রিয়া সেন –

কয়ামত সিনেমায় রিয়া সেনের সেই নাচটা কেই বা ভুলতে পারে। বলিউডে বো’ল্ডনে’স মানেই একটা সময় ছিল রিয়া সেন।

বিপাশা বসু –

রাজ গার্ল বিপাশার জাদুতে আবদ্ধ বলিউড। বিপাশা মানেই এক মুঠো উষ্ণতা।

রানি মু্খার্জি –

রানির বিউটি প্লাস বো’ল্ডনে’সে বলিউডে মুগ্ধ হয়ে যায়।

সূত্র – ইন্টারনেট