স্বামীকে জোর করে প’র্ন দেখিয়ে বিপা’কে স্ত্রী, ভিডিওতে নিজের স্ত্রী-কেই খুঁজে পেলেন স্বামী

0
179
প্রতীকী ছবি

সম্প্রতি বেঙ্গালুরু থেকে একটি চাঞ্চ’ল্যকর ঘটনা সামনে উঠে এসেছে। ৩২ বছর বয়সী একজন মহিলা চিকিৎসক যিনি তার প্রযুক্তিবিদ-স্বামীকে তার সাথে প’র্ন দেখার জন্য বা’ধ্য করেছিলেন। কিন্তু এরপর এমন এক কাণ্ড ঘটল, যেটা স্বামী-স্ত্রী কেউই আশা করেননি। অনলাইনে হঠাৎই একটি প’র্ন ক্লিপ দেখার পর বি’পাকে পড়েন ওই মহিলা চিকিৎসক। সেই ভিডিয়োতে দেখা যায় ওই মহিলা অন্য এক পুরুষের সাথে যৌ’ন স’ঙ্গ’মে ম’ত্ত। আর এই ভিডিয়ো দেখা মাত্রই রে’গে গিয়ে ঘর থেকে বেরিয়ে যান মহিলার স্বামী।

ওই মহিলা বর্তমানে পরি’হারের দরজায় ক’ড়া নাড়ছেন তার বিয়ের সম্পর্ক বাঁচাতে, এমনকি পু’লিশ কমি’শনার অফিসে কাউ’ন্সে’লিং সেন্টারেরও দারস্থ হয়েছেন তিনি।

প্রতীকী ছবি

৩২ বছর বয়সী ওই মহিলা আদতে কলকাতার মেয়ে এবং ৩৩ বছর বয়সী স্বামীর বাড়ি উত্তরপ্রদেশে। একটি ম্যাট্রিমোনিয়াল সাইটে আলাপ হয় তাদের এবং তারপর ২০১৮ সালে তারা বিয়ে করে পূর্ব বেঙ্গালুরুতে সেটেল হন।

তিনি বিয়ের আগে স্বামীকে জানিয়েছিলেন যে অতীতে একজনের সাথে তার সম্প’র্ক ছিল তবে পরে সে আলাদা হয়ে গেছে। এই দম্পতির মধ্যে সব কিছু ঠিকঠাক ছিল যদিও তিনি সবসময় তার স্বামীকে প’র্ন দেখতে এবং তার সাথে দৃশ্য’গুলি অভি’নয় করতে বা’ধ্য করতেন। যদিও স্বামী এসব ভিডিয়ো পছন্দ করতেন না, কিন্তু স্ত্রীর ইচ্ছাপূরণ করার জন্যই এই ধরণের ভিডিয়ো দেখতে হতো তাকে।

প্রতীকী ছবি

যাইহোক, স্বামী যখন তার মোবাইল ফোনে অন্য কোনও ব্যক্তির সাথে স্ত্রীর ঘ’নি’ষ্ঠ অবস্থার একটি ভি’ডিয়ো দেখেন তখন তিনি তার জীবনের অন্যতম বড় ধা’ক্কা খেয়েছিলেন। মহিলা দাবি করেন যে তিনি তাঁর প্রাক্তন প্রেমিক যিনি তাকে পুরানো ভিডিয়ো দিয়ে ব্ল্যা’ক’মে’ল করতেন এবং ভবিষ্যতে যদি এটির প্রযোজনার প্রয়োজন হয় তাই সে তা সেভ করেছিল। স্বামী অস’ন্তুষ্ট হলেও তিনি তাকে সান্ত্বনা দেন এবং তাকে এসব ভুলে যেতে বলেন।

তবে জানুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহে তিনি অনলাইনে একটি প’র্ন পেয়েছিলেন যাতে তার স্ত্রী এবং আবারও অন্য এক ব্যক্তিকে দেখা যায়। তিনি যখন স্ত্রীর মুখোমুখি হলেন, তিনি বিয়ের আগে অনেক স’ম্পর্ক থাকার কথা স্বীকার করেছিলেন কিন্তু কীভাবে ভিডিয়োটি অনলাইনে উপলব্ধ ছিল তা জানেন না।

প্রতীকী ছবি

আ’ঘাত পেয়ে লোকটি তাকে ছেড়ে পৃথকভাবে জীবনযাপন শুরু করে। পরে মহিলা পরি’হারের কাছে গিয়ে অভি’যোগ করেন যে তার স্বামী তার শ্বশুরবাড়ির পরামর্শে তার সাথে বাস করছেন না এবং তার যত্ন নিচ্ছেন না।

কেন্দ্রের সিনিয়র কাউ’ন্সে’লর বিএস সরস্বতী তাকে ডেকে এনে দম্পতিকে সামনাসামনি করেন। ওই ব্যক্তি বলেন যে তার স্ত্রী অ’শ্লী’ল ভিডিয়ো দেখার আ’স’ক্ত ছিল এবং তাকে তা করতে বা’ধ্য করেছিল। এছাড়াও, তিনি বলেছিলেন যে তিনি তার অতীত সম্পর্কে বিবরণ লুকিয়ে রেখেছিলেন বলে তিনি বি’রক্ত হয়ে তিনি তার থেকে পৃথক হয়ে গেছেন।

প্রতীকী ছবি

“লোকটি বিবাহ বিচ্ছেদ চায় তবে মহিলা অতীতে যা ঘটেছিল তা ভুলে গিয়ে তার বিবাহ বাঁ’চাতে চায়। আমরা এই দম্পতিকে পরামর্শ দিচ্ছি”, সরস্বতী জানিয়েছেন।

সূত্র – TOI

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here