করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবেও প্রেমের টানে বাঙালি যুবকের কাছে চীনা তরুণী

0
61
anandabazar

সাত বছর আগে চীনে গিয়ে এক তরুণীর প্রেমে পড়ে যান মেদিনীপুরের এক যুবক। দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্কের পর বিয়ের সিদ্ধান্ত নিলেন যুগল। এর মধ্যে চীনা তরুণী চলে আসলেন মেদিনীপুরে। এনডিটিভি ও আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, মঙ্গলবার পূর্ব মেদিনীপুরে বসে তাদের বিয়ের আসর। বাঙালি প্রেমিক পিন্টু জানাকে স্বামী হিসেবে গ্রহণ করেন চীনা তরুণী এঞ্জেল পিং। পরদিন আয়োজন করা হয় বউভাতের।

জানা যায়, চীনের গোয়াং প্রদেশে জামাকাপড়ের ব্যবসা করেন পিন্টুর মামা। সেখানেই কাজ করতে গিয়েছিলেন পিন্টু। গোয়াং প্রদেশের বাসিন্দা এঞ্জেলদেরও পোশাকের ব্যবসা রয়েছে। সেই সূত্রে দু’জনের দেখা-সাক্ষাৎ ও ভাষার বাধা পেরিয়েই প্রেম। পরে তারা ঘর বাঁধার সিদ্ধান্ত নেন। সম্মতি মেলে দুই পরিবারেরও।

প্রতীকী ছবি

বিয়েতে এঞ্জেল সাজেন লাল শাড়ি, চেলি, গয়নায়। আর চীন থেকে নবদম্পতিকে মোবাইলের ভিডিও কলে আশীর্বাদ করলেন এঞ্জেলের পরিবারের সদস্যরা। বিয়েতে তাদের হাজির থাকার কথা থাকলেও চীনের ভ’য়াবহ করোনা ভাইরাসের কারণে দেশ ছাড়তে পারেননি তারা। এর মধ্যে ভারত ও চীনের মধ্যে বিমান চলাচলও স্থগিত হয়ে গেছ।

এঞ্জেল বলেন, ‘আমার পরিবার খুশি এবং সুস্থই আছে। তবে ভাইরাসের ভয়ের কারণে তারা আমার বিয়েতে অংশ নিতে আসতে পারেননি।’ বিয়ের পর কি তারা চীনে ফিরে যাবেন, এমন প্রশ্নে এঞ্জেল বলেন, ‘আমরা ফিরে তো যাবই কিন্তু কখন যেতে পারব জানি না। সবকিছু মিটে গেলে আমরা ওখানে গিয়ে রেজিস্ট্রি এবং বাকি সবকিছু শেষ করব।’

anandabazar

পিন্টু জানান, চীনেও একটি অনুষ্ঠান হবে বিয়ের পরে। পিন্টু বলেন, ‘করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে এঞ্জেলের পরিবার বিয়েতে আসতে পারেনি। পরে চীনে গিয়ে আমাদের আরও একটি অনুষ্ঠান করতে হবে।’

সূত্র – বিডি২৪লাইভ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here