৯ মিনিটের অন্ধকারে বউ ভেবে ভুল করে শাশুড়িকে জড়িয়ে ধরলেন ঘরজামাই

0
1752
প্রতীকী ছবি

লক ডাউনের মাঝে গত ৩রা এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেশবাসীর উদ্দেশ্যে ভিডিওর মাধ্যমে এক বার্তা দেন। লড কডাউনে দেশবাসীর মনোবল বৃদ্ধিতে তিনি দেশবাসীর কাছে এই আবেদন করেন। একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে দেশবাসীর কাছ থেকে ৯ মিনিট চেয়ে নেন তিনি। রবিবার রাত ৯টায় ঘরের সমস্ত আলো নিভিয়ে নিজের বাড়ির বারান্দায় এসে প্রদীপ, মোমবাতি বা টর্চের আলো জ্বালাতে ও একযোগে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

সেরকমই প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়ে রবিবার রাত ৯টার সময় বাড়ির সমস্ত আলো নিভিয়ে দেন হুগলীর কোন্নগরের দাস পরিবারের সদস্যরা। আর তারপরই ঘটে যায় এক বিপত্তি। দাস পরিবারের সদস্য বলতে ৪ জন মানুষ। বয়স্ক দম্পতি, তাদের একমাত্র মেয়ে এবং তার স্বামী যিনি কিনা ঘরজামাই থাকেন।

দাসবাবুর জামাই একটি বহুজাতিক সংস্থার আইটি কোম্পানিতে কর্মরত এবং কর্মসূত্রে মুম্বাইতে থাকেন এবং মাঝেমধ্যে শ্বশুরবাড়ি ফেরেন। সম্প্রতি লক ডাউন ঘোষণার ২-৩ দিন আগেই তিনি শ্বশুরবাড়িতে আসেন এবং আর কাজে ফিরতে পারেননি। সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী গোটা পরিবারই হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন।

কোয়া রেন্টাইনে থাকায় সেইভাবে স্ত্রীর কাছে আসার সুযোগ পান না তিনি। রবিবার রাত ৯ টা নাগাদ যখন বাড়ির সমস্ত আলো নিভিয়ে দেওয়া হয়, সেই সুযোগে তিনি স্ত্রীর কাছে যাওয়ার চেষ্টা করেন এবং হাতটা চেপে ধরেন। তারপরই চিৎকার শুনে তার স্ত্রীর ফোনের ফ্ল্যাশ জ্বালতেই চক্ষু ছানাবড়া সবার। ওই ব্যক্তি দেখেন তিনি তার শাশুড়ির হাত ধরে রয়েছেন। এই ঘটনার পর সকলেই লজ্জিত হয়ে পড়েন।

প্রতীকী ছবি

তবে ওই মহিলা এবং তার মেয়ে দুজনেই তাকে ক্ষমা করে দেন যেহেতু এটি অনিচ্ছাকৃত ভুল ছিল। এরপর তারা সকলে মিলে ফোনের ফ্ল্যাশ জ্বেলে ৯ মিনিটের মধ্যে বাকি সময়টা বাড়ির ব্যালকোনিতে কাটায়।