করো’না টেস্টের জন্য মহিলার যৌ’নাঙ্গ থেকে সো’য়াবের নমুনা সংগ্রহ, গ্রে’ফতার হলেন কর্মী

0
132

ধ’র্ষণ এবং যৌ’ন হেনস্থার অ’ভিযোগে মহারাষ্ট্রে গ্রে’ফতার হয়েছে এক ল্যাব টেকনিশিয়ান। মা’রাত্মক অ’ভিযো’গ উঠেছে যুবকের বি’রুদ্ধে। পু’লিশ সূত্রে খবর, এক তরুণী ওই ল্যাব টেকনিশিয়ানের বি’রুদ্ধে অভিযোগ এনে বলেছেন কো’ভিড টেস্টের জন্য ওই যুবক তরুণীর গোপ’নাঙ্গ থেকে সোয়াব সংগ্রহ করেছে। মহারাষ্ট্রের অমরাবতীতে সরকারি হা’সপাতাল পরিচালিত একটি ল্যাবে ঘটেছে এমন ঘটনা।

পু’লিশ জানিয়েছে, অ’ভিযুক্ত অলকেশ অশোকরাও দেশমুখ চুক্তির ভিত্তিতে ওই ল্যাবে টেকনিশিনায়ন হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন। জানা গিয়েছে, একটি শপিং মলে চাকরি করেন ওই তরুণী। তাঁদের এক সহকর্মীর সম্প্রতি কো’ভিড টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছিল। সেই জন্য বাকি কর্মীদের সঙ্গে কো’ভিড টেস্ট করাতে গিয়েছিলেন ওই তরুণী।

প্রথমে অ’ভিযু’ক্ত ল্যাব টেকনিশিয়ান স্বাভাবিক ভাবেই তাঁর নাক থেকে লালারস সংগ্রহ করেন। এরপর তরুণীকে ওই যুবক জানায় যে রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। তবে সত্যিই তরুণী করো’নায় আ’ক্রান্ত কিনা তা জানতে একটা ফাইনাল টেস্ট করাতে হবে। সেজন্য তরুণীর গোপ’নাঙ্গ থেকে অর্থাৎ ভ্যা’জাই’নাল সোয়াব সংগ্রহ করা প্রয়োজন।

ল্যাবে কোনও মহিলা টেকনিশিয়ান আছেন কিনা সে ব্যাপারেও জিজ্ঞাসা করেন তরুণী। তবে অভিযুক্ত ল্যাব টেকনিশিয়ান জানায় যে কোনও মহিলা টেকনিশিয়ান নেই। এরপর তরুণীর যৌ’না’ঙ্গ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে টেস্ট করার পর তাঁকে জানানো হয় যে রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। গোটা প্রক্রিয়ায় সন্দেহ হওয়ায় নিজের দাদাকে ব্যাপারটা জানান তরুণী।

এক চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বিলে তরুণীর দাদা তাঁকে জানান যে কো’ভিড টেস্টের জন্য এ ভাবে সোয়াব সংগ্রহের কোনও ব্যাপার নেই। এরপরেই ওই ল্যাব টেকনিশিয়ানের বি’রুদ্ধে থানায় অ’ভিযো’গ দায়ের করেন তরুণী। তাঁর অ’ভিযো’গের ভিত্তিতে যুবককে গ্রে’ফতার করেছে পু’লিশ। গত ২৯ জুলাই ঘটেছে এই ঘটনা।

সংগৃহীত  – দ‍ি ওয়াল