বাজারে এলো করোনার প্রতিষেধক পতঞ্জলির “করোনিল” – কিন্তু শুরুতেই বিপত্তি…

0
159

করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে নাস্তানাবুদ গোটা বিশ্ব৷ প্রত্যেকদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা৷ মহামারীর ভ্যাকসিনের খোঁজে নিরন্তর গবেষণায় ব্যস্ত সারা বিশ্বের বিজ্ঞানীরা৷ কিন্তু সবার আগেই ভারতে করোনা সারানোর ওষুধ আনার দাবি যোগগুরু বাবা রামদেবের সংস্থা পতঞ্জলির৷

মঙ্গলবার বাজারে এল পতঞ্জলির করোনা সারানোর ওষুধ ‘করোনিল’৷ যোগগুরু রামদেবের দাবি, ৩ দিনে ৬৯ শতাংশ করোনা আক্রান্ত সেরে উঠতে থাকে৷ ৭ দিনের মধ্যে ১০০ শতাংশ করোনা মুক্ত হয়েছে রোগী৷ পতঞ্জলির এই করোনা ওষুধের দাম রাখা হয়েছে ৫৪৫ টাকা৷ এতে মিলবে করোনা কিট৷ তার মধ্যে করোনিল ট্যাবলেট ছাড়াও রয়েছে স্বসারি বটি এবং অনু তেল নামে একটি তেলের কৌটোও৷

হরিদ্বারের পতঞ্জলি রিসার্চ ইনস্টিটিউট ও জয়পুরের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স-এর যৌথ উদ্যোগে তৈরি হওয়া এই ওষুধে রয়েছে ১০০টি উপাদান৷

তার মধ্যে প্রধান উপাদান হল গুলঞ্চ, তুলসী ও অশ্বগন্ধা৷

করোনা সংক্রমণ সারাতে পতঞ্জলির প্রেসক্রিপশন- করোনিল ট্যাবলেট প্রতিদিন দু’টো করে লাঞ্চ ও ডিনারের পর গরম জল দিয়ে খেলেই কেল্লাফতে৷ শরীর ছেড়ে সাতদিনে পালাবে ভাইরাস৷ উল্লেখ্য, এই ডোজ ১৫-৮০ বয়সীদের জন্য৷ ৬-১৪ বছরের বাচ্চাদের ক্ষেত্রে এই ডোজ অর্ধেক দিতে হবে৷

যদিও, এই ওষুধের কার্যকারিতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা৷ তাঁদের মতে, ‘কোনও ওষুধ যা বৈজ্ঞানিক পরিসরে পরীক্ষা করা হয়নি, সেটাকে নিয়ে মাতামাতি করার আগে সাবধান হওয়া উচিত।’

ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় আয়ুষ দপ্তর থেকেও নিষেধ করা হয়েছে, যাতে এই ওষুধের বিজ্ঞাপন ও প্রচার না করা হয়।

ওদিকে বাবা রামদের জানিয়েছেন, আগামী সোমবার থেকেই অনলাইনে অ্যাপের মাধ্যমে এই ওষুধ অর্ডার করা যাবে এবং পতঞ্জলির তরফ থেকে আরও দাবি করা হয়েছে যে, খুব শীঘ্রই তারা এই ওষুধের কার্যকারিতার ব্যাপারে নিশ্চিত তথ্যপ্রমাণ দেবেন।

সূত্র – News18Bangla